বাড়ছে শীতজনিত রোগের প্রকোপ

ঋতুচক্রে শীতের আগমনের সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে শীতজনিত রোগের প্রকোপ। আক্রান্তদের বেশিরভাগই শিশু ও বয়স্ক হলেও সামনের দিনগুলোতে শীত আরো বাড়ার আশঙ্কা থাকায় এ ঝুঁকি থেকে মুক্ত নন কোনো বয়সের মানুষই।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, একটু সচেতন হলেই ঋতু পরিবর্তনজনিত এসব রোগ থেকে বাঁচা যায়। বিশেষ করে শিশুদের সুস্থ রাখতে মায়েদের বেশি সতর্ক থাকার পরামর্শ তাদের।

তিন মাস বয়সী শিশু স্বপ্নার শ্বাস নেওয়ার আপ্রাণ চেষ্টা। প্রতিটি মুহূর্তই কাটছে কষ্টে। মুন্সিগঞ্জ থেকে আসা নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত স্বপ্নার চিকিৎসা চলছে রাজধানীর শিশু হাসপাতালে।

শীত বাড়ার সাথে সাথে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত শিশু ও নবজাতকের সংখ্যা বাড়ছে রাজধানীর হাসপাতালগুলোতে। দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আসা এসব শিশুর অধিকাংশই ভুগছে সর্দি, কাশি, ডায়রিয়া ও নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন ঠাণ্ডাজনিত রোগে।

হঠাৎ করেই তাপমাত্রা কমে যাওয়ায় শীত ও ঠাণ্ডাজনিত রোগ থেকে মুক্ত নন বয়স্করাও।

পরিবেশ দূষণ, জীবনাচরণের পরিবর্তনসহ নানা কারণ এসব উপদ্রব বৃদ্ধির জন্য দায়ী, বলছেন ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মনজুর হোসেন এবং জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. রাশিদুল হাসান।

মৌসুমি এসব রোগ থেকে বাঁচতে সচেতনতা ও প্রতিরোধমূলক ব্যবস্থা গ্রহণের পরামর্শ দেন ঢাকা শিশু হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মনজুর হোসেন এবং জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. রাশিদুল হাসান।

শীতজনিত রোগের বেশিরভাগই স্বল্পমেয়াদী ও সহজ চিকিৎসায় সেরে যায় বিধায় বিশেষজ্ঞের পরামর্শ ছাড়া অ্যান্টিবায়োটিক কিংবা অন্য যেকোনো ওষুধ সেবন না করার পরামর্শ চিকিৎসকদের।

সময় নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.