নির্বাচনী আচরণ বিধি মানছে না আউটশাহীর আওয়ামী লীগ প্রার্থী

টঙ্গীবাড়িতে নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গ করে আউটশাহী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী সেকান্দর বেপারীর প্রচারনা চালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আগামী ৭ মে চর্তুথ ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ওই ইউনিয়নে। চতুর্থ ধাপের নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারণা ১৯ এপ্রিল শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আওয়ামী লীগ প্রার্থী মনোনয়ন পাওয়ার পর থেকেই নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রচারণা শুরু করে দিয়েছে। ফেসবুকে পোষ্টার তৈরী করে চলছে তার পক্ষে নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রচরনা। তার এই ধরনের কর্মকান্ডে ক্ষুব্ধ এই ইউনিয়নের অন্য চেয়ারম্যান প্রার্থীরা।

প্রায় প্রতিদিনই সেকান্দর বেপারীর কর্মী ও সমর্থকরা নৌকা প্রতিক নিয়ে মিছিল করছে। বিভিন্ন পথ সভায় সেকান্দর বেপারী নিজেও নৌকা প্রতীকে ভোট চাইছেন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও স্লোগানের বিভিন্ন ভিডিও আপলোড করছেন তার কর্মীরা। প্রতীক বরাদ্দের আগেই তিনি প্রচার শুরু করায় প্রচারে সমঅধিকার হতে বঞ্চিত হচ্ছেন এই ইউনিয়নের অন্য প্রার্থীরা। সেকান্দর বেপারীর এই ধরনের কর্মকান্ড ইউনিয়ন পরিষদ (নির্বাচনী আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬’র ৩ ও ৫ নং ধারার লঙ্ঘন, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

ইউনিয়ন পরিষদ (নির্বাচনী আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬’র ৩ ধারায় বলা আছে, ‘নির্বাচনী প্রচারণার ক্ষেত্রে সমানাধিকার। আইন এবং এই বিধিমালার অন্যান্য বিধান সাপেক্ষে, নির্বাচনী প্রচারণার ক্ষেত্রে যে কোন প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী, নির্বাচনে অংশগ্রহণকারী কোন রাজনৈতিক দল কিংবা উহার মনোনীত বা স্বতন্ত্র প্রার্থী কিংবা তাহাদের অন্য কোন ব্যক্তির সমান অধিকার থাকিবে।’

ইউনিয়ন পরিষদ (নির্বাচনী আচরণ) বিধিমালা, ২০১৬’র ৫ ধারায় বলা রয়েছে, ‘প্রচারণার সময়।- কোন প্রার্থী বা তাহার পক্ষে কোন রাজনৈতিক দল, অন্য কোন ব্যাক্তি, সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান প্রতীক বরাদ্দের পূর্বে কোন প্রকার নির্বাচনী প্রচার শুরু করিতে পারিবে না।’ এই আচরণ বিধির কোন ধারা লঙ্ঘন করলে প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থীর জেল-জরিমানার বিধানও রয়েছে আচরণ বিধিতে।

এ বিষয়ে আউটশাহী ইউনিয়নের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যন প্রার্থী জহিরুল হক লিটন ঢালী সাংবাদিকদের বলেন, আমি এখনো প্রতীক পাইনি, অথচ সেকান্দর বেপারী প্রতীক নিয়ে প্রচারণা চালাচ্ছে। এর ফলে আমি অধিকার বঞ্চিত হচ্ছি। নির্বাচন কমিশন এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিবে এটাই আশা করি।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.