বেতকায় ইউপি নির্বাচন নিয়ে দুই পরিবারের প্রেসটিজ ইস্যূতে সংঘর্ষ

টঙ্গীবাড়ী উপজেলার বেতকা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন নিয়ে ওই ইউনিয়নের শিকাদার ও খান পরিবারের প্রেসটিজ ইস্যূতে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। এলাকায় ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীর মহড়া চোখে পড়ছে। ওই দুই গোত্রের স্বতন্ত্র (আনারস) চেয়ারম্যান প্রার্থী বাচ্চু শিকদার ও (নৌকা মার্কার) প্রার্থী মুক্তার খান পাল্টাপাল্টি অভিযোগ করেছে এসব বিষয় নিয়ে। এদিকে এই ইউনিয়নের সব ক’টি কেন্দ্রে প্রিজাইডিং অফিসার পরিবর্তেনরও অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার রাত ১২ টার দিকে বেতকা চৌরাস্তায় ওই দুই গোত্রের লোকজন ও কর্মী সমর্থকরা সংঘর্ষে জড়িয়ে পরে। এ সময় গাড়ি ভাংচুর ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এর আগে খান পরিবারের শওকত আলি খান মোক্তার এর লোকজন শনিবার দিনব্যাপী মটরসাইকেল নিয়ে এলাকায় মহড়া দিয়ে আতঙ্কের সৃষ্টি করে চরছটফটিয়া স্কুল মাঠের সভায় গিয়ে মটরসাইকেল ও অস্ত্রের মহড়া দিয়েছে বলে বাচ্চু শিকদার অভিযোগ করেছে। এ ব্যাপারে মুক্তার খান এর সাথে যোগযোগ করা হলে সে জানায়, বাচ্চু শিকদার এর লোকজন বেতকা চৌরস্তায় আমার গড়িতে হামলা করে ভাংচুর করেছে। এ ব্যাপারে আমি থানায় অভিযোগ করেছি।

এলাকাবাসী জানান, বেতকা ইউনিয়নের নির্বাচন মানেই শিকদার ও খান পরিবারের দুই গোত্রের গোষ্ঠিগত লড়াই। এই দুই গোত্রের লোকজন যেভাবে মারমুখী হয়ে উঠেছে এবং লোক সমাগম ঘটাচ্ছে যে কোন সময় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা রয়েছে। এদিকে বেতকা ইউপির সব ক’টি অর্থ্যাৎ ৯টি কেন্দ্রে প্রথমে প্রিজাইডিং অফিসার নিয়োগ দিলেও পরে তা পরিবর্তন করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বাচ্চু শিকদার। বেতকা ইউপি আওয়ামী লীগের সভাপতি বাচ্চু শিকদার জানান, নৌকার প্রার্থী প্রভাব খাটিয়ে এটি করেছে। এতে নিরপেক্ষ নির্বাচন বিঘিœত হবে। জেলা নির্বাচন অফিসার ফয়সাল কাদের বলেছেন, বিষয়টি খোঁজ নিয়ে তিনি প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন। সংশ্লিষ্ট রির্টানিং অফিসার উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর মো. মনির হোসেনের সাথে কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করেও কথা বলা সম্ভব হয়নি।

এ ব্যাপারে টঙ্গীবাড়ী থানা ওসি আলমগীর হোসাইন জানান, মধ্য রাতে বেতকা চৌরস্তায় দুই গ্রুপের লোকজন জড়ো হলে পুলিশ গিয়ে লাঠিচার্জ করলে তারা সড়ে যায়। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.