গুরুতর অসুস্থ মাহমুদ রিয়াদ, দোয়া চেয়েছে পরিবার

সরকারি হরগঙ্গা কলেজের সাবেক ভিপি মাহমুদ রিয়াদ এর জন্য দোয়া চেয়েছে তার পরিবার। গুরুতর অসুস্থ হয়ে সে এখন ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে লাইফ সাপোর্টে অাছে।

পরিবার সূত্রে জানা গেছে, তাঁর ব্রেইনে সফল অস্ত্রপাচার হয়েছে। স্ট্রোকের কারণে ব্রেইনের যে রক্তকরণ হয়, তা পরিস্কার করা হয়েছে। তবে নার্ভ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রায় তিন ঘন্টা অস্ত্রপোচারের পর রবিবার ভোর ৫টা ১০মিনিটে তাঁকে আইসিইউতে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।

৪৮ ঘন্টা পর্যবেক্ষণের থাকার পরই তাঁর অবস্থা নিশ্চিত করার যাবে বলে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক জানিয়েছেন।

ভারতীয় নিউরোলোজিস্ট অধ্যাপক আর ই জর্জ চকোর অধীনে মাহমুদ রিয়াদ ভর্তি রয়েছেন। তিনি এই অস্ত্রপাচারে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

হাসাপাতালটির কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. এ এইচ এম আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, ব্রেইন স্ট্রোকে মাহমুদ রিয়াদের মাথার থেলামাস ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এই অংশটিতে ব্লিডিং হয়েছে। তাই তাঁকে সুরক্ষায় দ্রুত অস্ত্রপাচারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এর আগে শনিবার রাত ১১টায় উচ্চ রক্তচাপ এবং ব্রেইন স্ট্রোক জনিত কারণে তাঁকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সদালাপী, বিনয়ী ও ভালো মানুষ হিসেবে সুপরিচিত সাবেক এই ছাত্র নেতা শহরের পুরনো কাছারীতে রাত সাড়ে ৯টার দিকে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পরেন।

তাৎক্ষনিক মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসার পর তাঁকে ঢাকায় রেফার্ড করেন। সাথে সাথে এ্যাম্বুলেন্সে তাঁকে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে সিটি স্ক্যানসহ নানা পরীক্ষার পর তাঁর মাথায় অস্ত্রপোচারের সিদ্ধান্ত হয়।

এদিকে অসুস্থতার খবর পেয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস এমপি স্কয়ার হাসপাতালে ছুটে যান। মুন্সিগঞ্জ থেকে মাহমুদ রিয়াদের এ্যাম্বুলেন্সটি হাসপাতালে পৌছার আগেই তিনি সেখানে পৌছান এবং তাঁর উন্নত চিকিৎসার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেন। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে সেখানে অবস্থান করে চিকিৎসার খোঁজ খবর করেন। এছাড়া আরও অনেকেই মাহমুদ রিয়াদেকে দেখতে হাসপাতালে যান এবং পরিবারের কাছ থেকে খোঁজ খবর করেন।

এদিকে মাহমুদ রিয়াদের সুস্থতার জন্য তাঁর মা বিলকিস বেগম, স্ত্রী ইসরাত জাহান মৌসুমি আক্তার, একমাত্র পুত্র সপ্তম শ্রেণির ছাত্র মাশরুল আফিফ, ভাই সাংবাদিক তানভীর হাসান ও বোন লিপি আক্তার সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

পরিবারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে- উন্নত সব চিকিৎসা যথা সময়ে হচ্ছে।

পরিবার বলছে, নিরাময়ের পুরোপুরি মালিক সৃষ্টিকর্তা। তাই সকলের অনেক অনেক অনেক দোয়াই মাহমুদ রিয়াদকে আবার সকলের মাঝে ফিরিয়ে আনতে পারে।

আমার বিক্রমপুর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.