গজারিয়া রুটে ১০ দিন ধরে লেগুনা বন্ধ : যাত্রী দুর্ভোগ

ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সিদ্ধিরগঞ্জ, বন্দর, সোনারগাঁ ও গজারিয়া উপজেলা দিয়ে যাত্রী আনা-নেয়ার কাজে নিয়োজিত প্রায় ২ শতাধিক লেগুনা গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। মহাসড়কে সিএনজিচালিত বেবিটেক্সি চলাচল বন্ধ করে দেয়ার পর এ লেগুনা গাড়ি দিয়ে লোকাল যাত্রীরা চলাচল করে আসছিলেন। এক সপ্তাহ আগে একটি সড়ক দুর্ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ লেগুনা গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। সিএনজি বেবিটেক্সির বিকল্প হিসেবে হাইওয়ে রোডে নামানো লেগুনা বন্ধ করে দেয়ায় চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন ৪টি উপজেলার দৈনন্দিন চলাচলকারী হাজার হাজার লেগুনাযাত্রী।

এ রোডে চলাচলরত লেগুনা মালিক ও চালকদের অভিযোগ, কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ রোড পারমিটের নামে লেগুনা চলাচল বন্ধ করে দিলেও সব লেগুনা চলাচল বন্ধ করে দেয়নি। তারা কিছু কিছু লেগুনা মালিক-শ্রমিকের সঙ্গে গোপনে আঁতাত করে তাদের লেগুনা গাড়ি চলাচল করার ব্যবস্থা করে দিয়েছে। যাদের সঙ্গে আঁতাত নেই তাদের লেগুনা গাড়ি চলাচল বন্ধ অথবা হাইওয়ে থানায় আটক করে রেখেছে।

এ ঘটনায় লেগুনা মালিক ও শ্রমিকদের মাঝে চরম ক্ষোভ ও হতাশা বিরাজ করছে। এ ব্যাপারে কাঁচপুর হাইওয়ে পুলিশের দাবি, হাইওয়ে পুলিশের ঊর্ধ্বতন মহলের নির্দেশে রোড পারমিট না থাকার কারনে এ রোডে সব লেগুনা চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.