পদ্মা প্রকল্প এলাকায় ২৪ ঘণ্টা নিরাপত্তায় সেনাবাহিনী

মঈনউদ্দিন সুমন: পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকা ও দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী, শ্রমিকদের নিরাপত্তা দিয়ে আসছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। পদ্মা সেতু নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই দেশ ও পদ্মার পাড়ের মানুষের। প্রতিদিনই পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকায় বিদেশি দর্শনার্থীরা আসছে। প্রকল্প এলাকায় তাই দিনের ২৪ ঘণ্টা বাড়তি নিরাপত্তা রাখা হচ্ছে। সড়ক ও নৌপথে সেনা সদস্যদের টহল ও চেকপোস্ট বসিয়ে নিরাপত্তা ব্যবস্থা স্বাভাবিক রাখা হচ্ছে। বাংলাদেশসহ চীন, জাপান, ভারত, কোরিয়া, অস্ট্রেলিয়াসহ বিভিন্ন দেশের কর্মকর্তারা পদ্মা সেতু প্রকল্পের সঙ্গে জড়িত এবং প্রায়ই বিশেষজ্ঞ প্যানেল সরেজমিনে প্রকল্প এলাকা পরিদর্শন করছেন। এসব কারণে দেশের সবচেয়ে এই প্রকল্পটিতে যাতে নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি না থাকে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে।

পদ্মা সেতুর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা কর্মকর্তাদের সূত্রে জানা যায়, আর্মড পারসোনাল ক্যারিয়ার (এপিসি) ট্যাংকের সাদৃশ্য ৩টি, ১০টির বেশি সিবোট, এর মধ্যে দুইটি দ্রুতগতির বড় আকৃতির (মেটাল সার্ক বোট) পদ্মা সেতু প্রকল্পে এলাকায় নিরাপত্তায় কাজ করছে। ২টি রেজিমেন্ট মাওয়া প্রান্তে আছে। এর মধ্যে মাওয়া কন্সট্রাকশন ইয়ার্ড ও প্রান্তের অর্ধেকাংশে ৫৮ বেঙ্গল, জাজিরা প্রান্তে ৩৪ বিআইআর রয়েছে। এই দুইটি রেজিমেন্ট ৯৯ কম্পোজিট ব্রিগেডের অধীনে দায়িত্ব পালন করছে। সব মিলিয়ে ১৫০০ সেনা সদস্য নজরদারি রাখছে পদ্মা সেতু প্রকল্পে।

আরও জানা যায়, নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে দুই ভাগে বিভক্ত করা হয়েছে সড়ক ও নৌপথ। বিদেশি প্রকৌশলী ও শ্রমিকদের বাড়তি নিরাপত্তা প্রদান করা হচ্ছে। সার্ভিস এরিয়াগুলোতে নিরাপত্তা প্রদান, মাওয়া প্রান্তে ওয়াচ টাওয়ার বসানো হয়েছে, প্রবেশ মুখে চেকপোস্ট ও ছোট বড় অনেক গাড়ি আছে যা দিয়ে প্রতিনিয়ত টহল দেওয়া হচ্ছে। নৌ রুট দিয়ে পারাপাররত যাত্রীরা যাতে পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকার নিরাপত্তা বিঘ্নিত করতে না পারে এবং দেশি-বিদেশি প্রকৌশলী শ্রমিকরা যাতে নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হচ্ছে। বিভিন্ন ধরনের নৌযান ফেরি লঞ্চ সিবোট পদ্মা সেতু প্রকল্প এলাকার রুট দিয়ে যাতে প্রবেশ না করতে পারে সেই বিশেষভাবে নিশ্চিত করা হচ্ছে। কারণ প্রকল্প এলাকায় নদীতে ভাসমান ভেসেল, বড় বড় ক্রেন রয়েছে, কমার্শিয়ালভাবে ব্যবহার করা যানবাহনগুলো প্রকল্প এলাকায় ঢুকলে প্রতিন্ধকতা সৃষ্টি করে।

দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলছে পদ্মা সেতুর কাজ। তিনটি স্প্যান (সুপার স্ট্রাকচার) পিলারের ওপর বসিয়ে বর্তমানে ৪৫০ মিটার কাঠামো দৃশ্যমান হয়েছে। বর্তমানে চতুর্থ স্প্যান বসানোর জন্য পিলার ও আনুষঙ্গিক কাজগুলো করা হচ্ছে।

সোনালীনিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.