ইজতেমায় সংঘর্ষে নিহত ইসমাইলের বাড়িতে করুণ দৃশ্য!

টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা ময়দানে তাবলিগ জামাতের দুপক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় ইসমাইল নামে এক মুসল্লি নিহত হয়েছে। নিহত ইসমাইল মন্ডলের বাড়ি মুন্সিগঞ্জে। মাওলানা সাদ আহমাদ কান্ধলভী ও মাওলানা জোবায়ের আহমেদ সমর্থকদের মধ্যে এ ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। দুপক্ষের সংঘর্ষে ইজতেমা ময়দান রণক্ষেত্রে পরিণত হয়। আহত হন অন্তত তিন শতাধিক মুসল্লি।

শনিবার (১ ডিসেম্বর) পাঁচ দিনের জোর ইজতেমা অনুষ্ঠানকে কেন্দ্র করে সকালে এ সংঘর্ষ হয়।

গত বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) ছেলে জাহিদের হাত ধরে দ্বীনের রাস্তা তাবলিগ জামায়াতে বের হন মুন্সীগঞ্জের রামপাল ইউনিয়নের মিল্কিপাড়া গ্রামের ইসমাইল মণ্ডল (৬২)। টঙ্গীতে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে শনিবার নিহত হন তিনি। খলিল মণ্ডলের ছেলে ইসমাইল মণ্ডলের মৃত্যুর সংবাদে শোকের ছায়া নেমে আসে পরিবারে। তাদের সমবেদনা জানাতে এগিয়ে আসেন ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বাচ্চু শেখসহ গ্রামবাসীরা।

নাতনির বিয়েতে পরিবারের সঙ্গে ইসমাইল মণ্ডল।

নিহত ইসমাইল মণ্ডলের মেয়ে নিপা জানায়, সাত বছর আগে দুবাই থেকে দেশে ফিরে এসে আলুসহ রাখি মালের ব্যবসায় যুক্ত হন তার বাবা। তিন মেয়ে দুই ছেলের সংসারে তিন মেয়েরই বিয়ে হয়ে গিয়েছে, বড় ছেলে থাকেন সিঙ্গাপুরে। সব মিলিয়ে সংসার ভালোই চলছিল। গত ৫ বছর আগে তাবলিগ জামাতের সঙ্গে যুক্ত হন। মাঝে মাঝে চলে যান চিল্লা বা জামাতে।

এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার টঙ্গীতে যান। শনিবার তার মৃত্যু সংবাদ পাওয়ার পর পরিবারে শোকের ছায়া নেমে এলেও তারা মনে করেন দিনের রাস্তায় বের হয়ে ইসমাইল মণ্ডল শহীদ হয়েছেন। রাত সাড়ে ৭টা পর্যন্ত তার লাশ মুন্সীগঞ্জে এসে পৌঁছেনি। পরিবারের পক্ষ থেকে লোক গিয়েছে ঢাকাতে। কখন লাশ নিয়ে আসা হবে,তা নিশ্চিত করে কেউ বলতে পারছেন না।

বিডি২৪লাইভ/এআইআর

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.