গ্রেট হিমালয়কে ১৪০ রানে গ্রীন ওয়েল ফেয়ার সেন্টার হারায়, ২৮৪ রানের জবাবে, ১৪৪ রানেই তাড়ায়

জসীম উদ্দীন দেওয়ান : মিরকাদিমে হিমালয়ের অনুর্ধ ১৬ টিমের ছেলেরা লড়তে এসেছে। গ্রীন ওয়েল ফেয়ার সেন্টারের নিমন্ত্রনটা তারা ভালোবেসেছে। পর্বত জুড়ে যাদের বসবাস। বেটে বলে গ্রীন ওয়েলকে করে যেন কি সর্বনাশ! প্রথমে বেট করতে নেমেই উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকদের ছিলো ভয়টা। পরে ৩০ ওভারে, ২৮৪ রানে তাই নিশ্চিত করতে চায় জয়টা। নেপালের গ্রেট একাডেমির টিমটা,লাভ পাচ্ছে না এটে কোন থিমটা। দলের ১১ বছরের পুচকে ঈশানের বলিং থাবায়, গ্রীন ওয়েল কাপ্তান তারিফকে খানিকটা ভাবায়। তিন ওভারে এই পুচকে তুলে নেয় তিন উইকেট। এর পর আর থামাতে পারেনি কেউ স্বাগতিকদের বেট। ৫৪ বলে লোকনাথের আকাশ ছোঁয়া ১০৩ রান। সাথে ঝড়ো গতিতে ৬০ রান করে কাপ্তান। সব উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকরা পৌঁছায় ২৮৪ রানে। উইকেট স্বিকারী ঈশান নিজের সাফল্য সকলকে দিতে জানে। দলের সকলের সাথে নাকি এই পুচকের ভেজায় ভাব। তাই নাকি ওর তিন ওভাবে, তিন উইকেট লাভ।

২৮৫ রানের টার্গেটটা যেন হিমালয়ের সমান। গ্রেট নেপাল দেখে বুঝে করতে চায় সে রান। বাঁধতে পারেনা তারা বড় কোন জুটি। ১৪৪ রানেই মাঠ থেকে, নিতে হয় তাই ছুটি। গ্রীন ওয়েল কাপ্তানের ছিলো মনো বল, জানালেন তারই কারণে ১৪০ রানের জয়ের ফল ক্লাবটি সব সময় করতে চায় এমন আয়োজন। তবে খোঁজে পায়না ধনার্ঢ্য ক্রিড়ামোদি মন। বলছেন জিনি মনিরুজ্জামান শরীফ গ্রীন ওয়েলের সেক্রেটারী। সুযোগ পেলে এমন আয়োজন হবে বুড়ি বুড়ি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.