মুন্সীগঞ্জে অযত্নে নষ্ট হচ্ছে ইটের পুল

মোগল শাসনামলে তৈরি মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার রামপাল ইউনিয়নের পোল ঘাটার ইটের পুল কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে আছে। ইট ও সুরকি দিয়ে তৈরি এই পুলটি মোগল আমলের অন্যতম আকর্ষণীয় পুরাকীর্তি। তাই এ স্থাপনাটি সংরক্ষণ করা এখন সময়ের দাবি বলে জানিয়েছেন মুন্সীগঞ্জের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। অযত্নে-অবহেলায় নষ্ট হচ্ছে পুলটি।

প্রত্নতত্ত্ববিদদের মতে, ইতিহাস ঘেঁটে দেখা গেছে, মোগল শাসনামলের অন্যতম স্থাপনা এটি। ধারণা করা হচ্ছে, ওই সময়ে রাজাদের সড়কপথে চলাচলের জন্য এ পুলটি স্থাপন করা হয়েছিল।

জেলা শহর থেকে ৬ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত এই পুলটি সদর উপজেলা ও টঙ্গিবাড়ি উপজেলার মধ্যে বন্ধন তৈরি করে রেখেছে। পুলটির পশ্চিম পাশে টঙ্গিবাড়ি উপজেলা আর পূর্ব প্রান্তে সদর উপজেলা। অমূল্য এই স্থাপত্যটি এখন জৌলুসহীন, ধ্বংসের পথে। পুরাকীর্তি অধিদপ্তর একটি সাইনবোর্ড লাগিয়েই যেন দায়িত্ব সেরেছে। অযত্ন আর অবহেলায় ক্রমেই এটি বিনষ্ট হচ্ছে। পুলটির মাঝে দেখা দিয়েছে ফাটল। পুলের ওপর দিয়ে এখন আর কোনো যন্ত্রযান চলছে না। তবে রিকশা, সাইকেল, মোটরবাইকসহ ছোটোখাটো যান চলছে। অর্ধবৃত্তের মতো এই পুলটির মাঝখানে নৌ চলাচলের তিনটি স্থান রয়েছে। দু’পাশের দুটি ছোট আকারের হলেও মাঝেরটি বেশ বড়। কমলাঘাট-দীঘিরপাড় খালের ওপর এই পুলটি নির্মিত। এই খালটি পদ্মা থেকে ধলেশ্বরী নদীতে যুক্ত। এই খাল দিয়ে দীর্ঘকাল ধরে লঞ্চসহ বিভিন্ন নৌযান চলাচল করলেও সেতুটির ক্ষতি হয়নি।

সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.