করোনা সংক্রমণে মুন্সীগঞ্জ ‘রেড জোনে’ অন্তর্ভুক্ত হওয়ার শঙ্কা

কাজী সাব্বির আহমেদ দীপু: দেশে বেশি করোনা শনাক্ত জেলাগুলোর মধ্যে পঞ্জম স্থানে মুন্সীগঞ্জ। আর যেভাবে করোনা শনাক্তের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে, তাতে মুন্সীগঞ্জ রেড জোনে অন্তর্ভুক্ত হওয়ার শঙ্কার উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন জেলা সিভিল সার্জনসহ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। অন্যদিকে ঈদের পরে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়া ১০টি জেলার মধ্যে মুন্সীগঞ্জ রয়েছে।

সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম আজাদ জানান, নিরবে মুন্সীগঞ্জে করোনা সংক্রমনের বিস্তার লাভ করছে। এ মুহূর্তে জনসচেতনতা বৃদ্ধি করা না হলে ভয়াবহ পরিস্থিতি ধারণ করবে। ইতিমধ্যেই জেলায় ২৩ জন মারা গেছেন।

এ দিকে বৃহস্পতিবার নতুন আরও ৫১ জন করোনা শনাক্ত হওয়ায় মুন্সীগঞ্জ জেলায় করোনা ভাইরাস শনাক্তের ৮৫৩ জনে দাঁড়িয়েছে। এর মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২৪২ জন ও মারা গেছেন ২৩ জন।

সিভিল সার্জন ডা. আবুল কালাম উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, মানুষের মাঝে সচেতনতার কোনো বালাই নেই। লাল, হলুদ ও সবুজ-এ তিন রঙে পুরো দেশ ভাগ করা হলে মুন্সীগঞ্জ রেড জোনে অর্ন্তভুক্ত হওয়ার শঙ্কাই বেশি। তাই ব্যক্তি উদ্যোগে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে পারলে সংক্রমণ রোধ করা সম্ভব। জেলার সর্বত্রই করোনা ছড়িয়ে পড়েছে এমন পরিস্থিতিতে মাস্ক ছাড়া ঘর থেকে বের হওয়া যাবে না। এমনকি মানুষের ভিড় এড়িয়ে চলতে হবে।

জেলা সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানায়, এ পর্যন্ত ৫ হাজার ২২৩ জনের সোয়াব পাঠানো হয় ঢাকায়। এর মধ্যে ৪ হাজার ৪৬৮৮ জনের প্রাপ্ত রিপোর্টে জেলায় করোনা শনাক্তের সংখ্যা দাড়িয়েছে ৮৫৩ জনে। এর মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের ৯৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

সূত্র আরও জানায়, বৃহস্পতিবার পর্যন্ত করোনা শনাক্ত ৮৫৩ জনের মধ্যে সদর উপজেলায় ৪১১ জন, টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় ৫২ জন, সিরাজদিখান উপজেলায় ১২০ জন, শ্রীনগর উপজেলায় ৮৪ জন, লৌহজং উপজেলায় ৯৬ জন এবং গজারিয়া উপজেলায় ৯০ জন করোনা শনাক্তের রোগী রয়েছে। অন্যদিকে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ২৪২ জন এবং বৃহস্পতিবার আরও একজনের মৃত্যু হওয়ায় জেলায় এখন মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৩ জনে।

সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.