পতাকা উৎসব উদযাপন

নাসির উদ্দিন উজ্জ্বল: ভিন্নধর্মী আয়োজনে মুন্সিগঞ্জে হয়ে গেল পতাকা উৎসব। মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণকারী বীরযোদ্ধারা নতুন প্রজন্মের হাতে তুলে দেন জাতীয় পতাকা। আয়োজকরা জানান, কালের ধারায় স্বাধীনতার ইতিহাসকে প্রবহমান রাখতে এমন উদ্যোগ।

মুন্সীগঞ্জ শহরের ‘পতাকা একাত্তর’ ভাস্কর্য চত্বরে বীর মুক্তিযোদ্ধারা পতাকা হস্তান্তর করেন নতুন প্রজন্মসহ অতিথিদের মাঝে। স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বের প্রতীক, অমূল্য এ পতাকা নতুন প্রজন্মের মাঝে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছড়িয়ে দেবে বলে মন্তব্য আয়োজকদের।

শুধু সাধারণ জনগণ নয় প্রশাসনের কর্মকর্তারাও কার্যক্রমে অংশ নিয়ে এ উদ্যোগকে ব্যতিক্রমী ও সময়োপযোগী বলে মন্তব্য করেন।

এ সময় মুন্সীগঞ্জের ডিসি মো. মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন, আমরা যারা ৭১ দেখি নি, তাদের জন্য এমন অনুষ্ঠান ৭১ এর অনুভূতি জাগায়। অনেক কষ্ট আর ত্যাগের বিনিময়ে আমরা এই পতাকা পেয়েছি।

বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর যুদ্ধকালীন ঢাকা বিভাগীয় বিএলএ কমান্ডার মোহাম্মদ মহিউদ্দিনের নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধারা নতুন প্রজন্মের হাতে পতাকা হস্তান্তর করতে গিয়ে এর ইতিহাস জানান দেন।

যুদ্ধকালীন বিভাগীয় বিএলএফ কমান্ডার আলহাজ মোহাম্মদ মহিউদ্দিন বলেন, ৩০ লক্ষ্য শহীদের রক্তের বিনিময়ে আমরা এই পতাকা অর্জন করেছি।

১৯৭১ সালের অগ্নিঝরা মার্চের এই দিনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনের সামনে প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। সেই দিনটিকে স্মরণীয় করে রাখতে ৬ দফার ছয়টি হাতে ধরা পতাকা একাত্তর ভাস্কর্য উদ্বোধন হয় ২০১৮ সালের এই দিনটিতে। সেখানেই এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে ‘অন্বেষণ বিক্রমপুর’।

সময় টিভি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.