জাপানে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ ২০২১ পালন

রাহমান মনি: জাপানে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ। বাংলাদেশের স্থপতি, জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ – এর ভাষণের ৫০ বছর পূর্তি উদযাপন উপলক্ষ্যে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

দিবসটির তাৎপর্যে জাপানের টোকিওস্ত বাংলাদেশ দূতাবাস ৭ই মার্চ ‘২১ রোববার সকালে অনলাইন প্লাটফর্মে ভার্চ্যুয়াল ( জুম ) আয়োজনটি করে। এতে কেবল মাত্র আমন্ত্রিত অতিথিরা অংশ গ্রহনের সুযোগ পেয়ে থাকে।

জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমদের নেতৃত্বে দূতাবাসের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের উপস্থিতিতে দূতাবাস প্রাঙ্গণে জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মাধ্যমে রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমেদ কর্তৃক আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সূচনা করা হয়।

পতাকা উত্তোলন শেষে জাতির পিতা, তাঁর পরিবারের শাহাদাতবরণকারী সদস্যবৃন্দ ও মুক্তিযুদ্ধে জীবন উৎসর্গকারী শহিদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এরপর জাতির পিতা, তাঁর পরিবারের শাহাদাতবরণকারী সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত এবং বাংলাদেশের উত্তোরত্তর সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

বাহিরের আনুষ্ঠানিকতা শেষ হলে দূতাবাস মিলনায়তন বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে দিবসটি উপলক্ষ্যে বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণী সমুহ পাঠ করে শোনানো হয়।

এরপর রাষ্ট্রদূত শাহাবুদ্দিন আহমেদ শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন।

রাষ্ট্রদূতের শুভেচ্ছা বক্তব্য শেষে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণের গুরুত্ব ও তাৎপর্য নিয়ে জাপান প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির পক্ষ থেকে দুতাবাস কর্তৃক নির্ধারিত বিভিন্নজন বক্তব্য প্রদান করেন।

সবশেষে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ – এর ভাষণের ভিডিও প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

rahmanmoni@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.