২ টাকা দামও নেই টমেটোর

এ বছর মুন্সীগঞ্জের ৬ উপজেলায় টমেটোর বাম্পার ফলন হয়েছে। এতে ব্যাপক লাভের সম্ভাবনা দেখা দিলেও বর্তমানে বাজারে একদমই দাম নেই টমেটোর। দেড়/দুই টাকা কেজি ধরেও কৃষকরা বিক্রি করতে পারছেন না এসব টমেটো। এতে আবাদ ব্যয় দূরেই থাক, উত্তোলন ব্যয়ও হচ্ছে না। জমিতেই নষ্ট হচ্ছে মণ মণ টমেটো।

জানা যায়, ছয়টি উপজেলায় এ বছর ৩১৫হেক্টর জমিতে আবাদ হয়েছে টমেটো।

সরেজমিনে মোল্লাপাড়া ও টরকি এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, জমির পাশেই পড়ে নষ্ট হচ্ছে সারি সারি টকটকে পাকা টমেটো। গাছেও ঝুঁলছে কাঁচা-পাকা টমেটো। তবে বাজারে দাম না থাকায় উত্তোলনে নেই আগ্রহ কৃষকদের। অধিকাংশ জমিতেই পঁচে যাচ্ছে। মোল্লাপাড়া এলাকায় প্রতিটি জমিতেই নষ্ট হচ্ছে শত শত কেজি টমেটো।

কৃষকরা জানান, প্রতি মণ টমেটো বিক্রি হচ্ছে ৫০-৬০ টাকায়। ক্রেতায় নেই বললে চলে।

বছর বছর লোকসান গুণতে গুণকে ক্লান্ত রহমত বেপারী বলেন, সরকার নাকি কত কিছু করে। আমাগো টমেটো-শাক-সবজি রাখার জন্য একটা কোল্ডস্টোরেজ তৈরি করলে সংরক্ষণ করতে পারতাম। এতো লোকসান হতো না।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদফতরের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম জানান, টমেটোর ভালো উৎপাদন হয়েছে। বাজারে পর্যাপ্ত শাকসবজি থাকায় চাহিদা কমে যাওয়ায় এমন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। তবে চাষীরা টমেটো ফেলে না দিয়ে বিকল্প উপায় অনুসরণ করতে পারে। এক্ষেত্রে কোনো চাষী পরামর্শ চাইলে তাদের সহযোগিতা করা হবে।

সারাবাংলা/

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.