গজারিয়ার ১৩ কিলোমিটার খাল খনন

মাহবুব আলম জয়: গজারিয়া উপজেলায় ৪নং ভবেরচর ইউনিয়নে প্রায় দীর্ঘ ১৩ কিলোমিটার খাল খননের মাধ্যমে ইউনিয়নের আট থেকে নয় গ্রামের জনসাধারণ ও কৃষকদের স্বপ্ন পূরণ সহ এলাকাবাসীর মুখে ফুটে উঠছে হাসি।

পৈক্ষরাপাড়, আলিপুরা, শ্রীনগর, চরপাতালিয়া গ্রামের একাধিক নারী পুরুষ জানান, ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জি. সাহিদ মো. লিটন ভবেরচর ইউনিয়নের বিভিন্ন গ্রামের আশেপাশে ভরাট ও বেদখল থাকা খাল খননের মাধ্যমে সাধারণ কৃষক, বিলুপ্ত মৎস্য পেশাজীবীদের মধ্যে হাঁসি ফুটিয়েছেন। ভবেরচর ইউনিয়নের মধ্যে ৮ থেকে ৯টি গ্রামের আশেপাশে দীর্ঘ প্রায় ১৩ কিলোমিটার খাল খনন বাস্তবায়নে ভবেরচর ইউনিয়ন বাসীদের মধ্যে বিলুপ্ত মৎস্য পেশাজীবী এবং হতাশ কৃষকদের মুখে হাসি ও নতুন স্বপ্ন, উজ্জীবিত হচ্ছে নতুন আত্মকর্মসংস্থানের সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ চল্লিশ বছরের শুকনো এবং ভরাট বেদখল খাল খননের মাধ্যমেই গ্রামবাসী পেয়েছে নদীর স্বচ্ছ পানি। আশা জেগেছে মৎস্যজীবীদের মধ্যে স্বপ্ন দেখেছে গ্রামের সাধারণ কৃষক।

খাল খননের ফলে নদীর পানি, দেশিয় মাছের প্রজন্ম বৃদ্ধির সুবিধা সহ মৎস পেশায় নতুন করে উজ্জীবিত হচ্ছে যুব সমাজ। পৈক্ষারপাড় গ্রামের আল আমিন, মো. আলী, আলিপুরা গ্রামের শহীদ উল্লাহ ভূঁইয়া, আজিজুল হক প্রধান, সরকার বাড়ির আব্দুর রাজ্জাক জানান, বর্তমান সময়ে নির্বাচিত চেয়ারম্যান ইঞ্জি. সাহিদ মো. লিটনকে ধন্যবাদ জানাই।

উপজেলা প্রকৌশলী মো. ইশতিয়াক আহমেদ বলেন, খাল খনন প্রকল্প বাস্তবায়নের ফলে এলাকার কৃষক সেচ সুবিধা সহ মৎস্য চাষ সুবিধা পাবে এলাকার মানুষ। ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জি. মো. লিটন জানান ৪নং ভবেরচর ইউনিয়নে একাধিক গ্রামের আশেপাশে ভরাট ও বেদখল হওয়া খাল পুনঃরুদ্ধার এবং খননের মাধ্যমে সাধারণ মানুষের কল্যাণে, কৃষি খাতে কৃষকদের কাঙ্খিত ফসল নিশ্চিত করতে খাল খনন প্রকল্প বাস্তবায়ন কাজ চলছে। খাল খননের মাধ্যমে এলাকার যুবকদের মৎস্য চাষে আত্মকর্মসংস্থানে উদ্বুদ্ধ করা, কৃষকদের কাঙ্ক্ষিত ফল নিশ্চিত করা সহ সরকারের সর্বাধিক গুরুত্ব দেয়া এই প্রকল্পে।

আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার সু স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি। প্রকল্প বাস্থবায়নে, মুন্সিগঞ্জ-৩ মাননীয় সংসদ সদস্য অ্যাড. মৃণাল কান্তি দাস এবং গজারিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলামকে ধন্যবাদ জানাই।

নিউজজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.