মুন্সীগঞ্জে প্রবাসীর হাত-পায়ের রগ কাটল প্রতিপক্ষ

চিকিৎসক জানান, তার হাত ও পায়ের রগ কাটা গেছে এবং পায়ের হাড় ভেঙেছে। মুন্সীগঞ্জ সদরে ‘আধিপত্য বিস্তারের জেরে’ বসত ঘরে ঢুকে এক সাইপ্রাস প্রবাসীর হাত ও পায়ের রগ কেটে দিয়েছে একদল লোক।

মঙ্গলবার বিকালে চরকেওয়ার ইউনিয়নের ছোট মোল্লাকান্দি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

বাবুল গাজীকে (৩২) মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

বাবুল জানান, দীর্ঘদিন তিনি প্রবাসে ছিলেন। ছয় মাস আগে দেশে এসেছেন; কিন্তু গ্রামে থাকছিলেন না। মঙ্গলবার সকালে গ্রামে এসেছেন। ভিসা হয়েছে আবার চলে যাবেন।

“বিদেশে চলে যাব বলে ঘর বিক্রি করছিলাম। তাই ঘরের ভিতর বৈদ্যুতিক তার খোলার জন্য মই উপরে থাকা অবস্থায় খাসকান্দি গ্রামের ৮/১০ জন লোক হামলা চালায়। দেশীয় অস্ত্র দিয়ে আমাকে কুপিয়ে জখম করে।”

বাবুলের স্ত্রী মিতু আক্তার হামলাকারী দুই জনকে চিনতে পেরেছেন বলে জানান।

বাবুলের ভাবি সাকিনা বেগম বলেন, “বাবুলকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার সময় হামলা করে আমাদের সিএনজি চালিত অটোরিকশা মাঝপথে অনেকক্ষণ আটকে রাখে হামলাকারীদের একজন।”

মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক শৈবাল বসাক জানান, তার হাতের এবং পায়ের একাধিক স্থানে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। হাত ও পায়ের রগ কাটা ছিল এবং পায়ের হাড় ভেঙে গেছে। অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানা ওসি তারিকুজ্জামান বলেন, ঘটনস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বিবদমানা দুই গ্রুপের বিরোধের কারণে এটি ঘটেছে। অপরাধীদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

বিডিনিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.