বিসিসিআইজের নেতৃত্বে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সৌজন্য সাক্ষাৎ

রাহমান মনি: জাপানে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমার সঙ্গে বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি ইন জাপান (বিসিসিআইজে)-এর নেতৃত্বে জাপান প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দল এক সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। বিসিসিআইজের প্রথম নির্বাচিত সভাপতি বাদল চাকলাদার, সাধারণ সম্পাদক হাকিম, এমডি নাসিরুল এবং প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী এমডি এস. ইসলাম নান্নু ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন।

১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৬ শুক্রবার অপরাহ্নে দূতাবাস মিলনায়তনে অত্যন্ত সৌহার্দ্যপূর্ণ এই সৌজন্য সাক্ষাৎ আয়োজনে দূতালয় প্রধান নুর-এ-আলম এবং কমার্শিয়াল কাউন্সিলর মোহাম্মদ হাসান আরিফ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন। সাপ্তাহিক প্রতিনিধি রাহমান মনিও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

সাক্ষাতের শুরুতেই দূতাবাস কর্মকর্তাগণ রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের পরিচয় করিয়ে দিয়ে বলেন, আমাদের দেখা মতে জাপানে নিজ চেষ্টায় সকলেই প্রতিষ্ঠিত ব্যবসায়ী, জাপানে প্রবাসীদের দ্বারা যতগুলো আয়োজন হয়ে থাকে তার সবগুলোতে তাদের সক্রিয় অবদান থাকে। এমনকি দূতাবাসের অনেক আয়োজনে তাদের সবার অবদান থেকে থাকে। তারা শুধু ব্যবসায়ী সমাজেরই প্রতিনিধিত্ব করেন না, পুরো প্রবাসী সমাজেরই নেতৃত্ব দিয়ে থাকেন।

এরপর প্রতিনিধি দলের সকল সদস্য নিজ পরিচিতি তুলে ধরে সংক্ষিপ্ত শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন। সকলের পরিচিতি পর্ব শেষে বিসিসিআইজের পক্ষে বণিক সমিতির সংক্ষিপ্ত ইতিহাস, পেছনের কথা, গঠনতন্ত্র, নির্বাচনী প্রক্রিয়া এবং মিনিস্ট্রি অব ইকোনমি, ট্রেড এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ (METI)-তে অনুমোদনের জন্য বিভিন্ন প্রক্রিয়া অনুসরণের আদ্যোপান্ত তুলে ধরেন। এ সময় তিনি সদ্য বিদায়ী রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন কর্তৃক সত্যায়িত কপিসহ যাবতীয় নথি রাষ্ট্রদূতের নজরে আনেন।

রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বলেন, আপনারা সবাই অনেকদিন ধরে জাপানে আছেন, জাপানে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলে আপনাদের ভূমিকা ও গুরুত্ব অপরিসীম।
আমি বলব, যেহেতু জাপানে আপনারা বাংলাদেশের প্রতিনিধিত্ব করছেন তাই দেশের স্বার্থে আপনারা সকলে মিলে একযোগে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বলে কাজ করলে ভালো হবে। মনে রাখবেন কাউকে মাইনাস করে কাজ করার চেয়ে তাকে সঙ্গে নিয়ে কাজ করার কৃতিত্ব অনেক বেশি।

সাপ্তাহিক প্রতিনিধি রাহমান মনির সঙ্গে কথা প্রসঙ্গে রাষ্ট্রদূত বলেন, দূতাবাস যেহেতু বাংলাদেশের, তাই প্রতিটি বাংলাদেশিদের জন্য দূতাবাসের দ্বার সবসময় খোলা থাকবে।

সবশেষে বিসিসিআইজের পক্ষ থেকে নবাগত রাষ্ট্রদূতকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় এবং প্রবাসীদের পক্ষ থেকে সকল প্রকার সহযোগিতার আশ্বাস দেওয়া হয়। সভাপতি বাদল চাকলাদার এবং অন্যান্যরা রাষ্ট্রদূতের হাতে ফুলের তোড়া তুলে দিয়ে রাষ্ট্রদূতকে জাপানে স্বাগত জানান।

rahmanmoni@gmail.com

সাপ্তাহিক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.