টোকিও বেছে নিল ২০২০ অলিম্পিক প্রতীক

টোকিও ২০২০ অলিম্পিক এবং প্যারা অলিম্পিক আয়োজক কমিটি ২৫ এপ্রিল সোমবার আনুষ্ঠানিকভাবে ম্যাগা আসরের জন্য নীল-সাদা ছককাটা বৃত্তের লোগো এবং প্যারা অলিম্পিক আসরের জন্য একই রঙের ঝুড়ি লোগো বেছে নেন। আয়োজক কমিটির বৈঠক শেষে জাপান বেইসবল ব্যক্তিত্ব সাদাহারু ওহ এবং লোগো বাছাই কমিটির চেয়ারম্যান রিয়োহেই মিয়াতা লোগো প্রদর্শন করে আনুষ্ঠানিক এই ঘোষণা দেন।

প্রায় ১৫ হাজার নকশার মধ্য থেকে ৪টি মনোনীত করে দর্শকদের কাছ থেকে ভোট চাওয়া হয়। ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে এবং জাপানে বসবাসকারী এমন ব্যক্তিদের কাছ থেকে মতামত চাওয়া হয়। প্রায় ৪০ হাজার মতামতকারী শিল্পী আসাও তোকোর নকশা নীল-সাদা রঙের ছককাটা সংবলিত লোগোর পক্ষে তাদের মতামত দেন।
টোকিও যোকেই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থাপত্য বিদ্যায় ডিগ্রিধারী ৪৬ বছর বয়সী আসাও তোকোরো বিভিন্ন প্রদর্শনীতে একজন অঙ্কন ডিজাইনার হিসেবে কর্মরত। বিজয়ী হিসেবে তিনি এক মিলিয়ন জাপানি ইয়েন নগদ অর্থ এবং ২০২০ সালের টোকিও অলিম্পিক এবং প্যারা অলিম্পিক উভয় আসরের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগদানের জন্য একটি করে টিকেট পাবার গৌরব অর্জন করেন।

টোকিও বেছে নিয়েছে ২০২০ সালে অনুষ্ঠিতব্য টোকিও অলিম্পিক এবং প্যারা অলিম্পিক-এর চূড়ান্ত প্রতীক।
গত অক্টোবর ২০১৫ প্রথমবার নির্বাচিত জিরো সানোর বাছাইকৃত লোগো নকলের অভিযোগে বাতিল করা হয়। বেলজিয়ান থিয়েটারের একজন ডিজাইনার সানোর বিরুদ্ধে তার ডিজাইনের নকল করার অভিযোগ আনেন। যা বাতিল করতে বাধ্য হন লোগো বাছাই কমিটি। সে সময় লোগো বাছাই প্রক্রিয়া নিয়েও তুমুল সমালোচনার মুখে পড়তে হয় বাছাই কমিটিকে। তাই বাতিলের মাত্র ৭ মাসের মাথায় চূড়ান্ত নকশার পুনঃনির্বাচন করতে বাধ্য হলো কমিটিকে।

লোগো নির্বাচন করার পর আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দিয়ে সংবাদ সম্মেলনে বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে হয়েছে লোগো বাছাই কমিটি এবং নকশাবিদকে। সাংবাদিকরা বিভিন্ন প্রশ্নবাণে জর্জরিত করেন উভয়কে। এবারও লোগো বাছাই প্রক্রিয়ায় গলদ রয়ে গেছে বলে সাধারণ জনগণ মনে করেন। তারপরও সময় এবং অবস্থানের কথা চিন্তা করে তা মেনে নিয়েছেন।

তবে যে কেউ ইচ্ছা করলেই নির্বাচিত লোগো ব্যবহার করতে পারবেন না। কেবলমাত্র অনুমোদিত ব্যক্তি বা সংগঠন (বিজ্ঞাপনদাতা, পৃষ্ঠপোষক) নতুন নির্বাচিত বা চূড়ান্তভাবে নির্বাচিত লোগো ব্যবহার করায় অনুমতি পাবেন।

(তথ্য এবং ছবি : মিডিয়া এবং আন্তর্জাল)
rahmanmoni@gmail.com
সাপ্তাহিক

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.