ধলেশ্বরী তীরে অবৈধ ইটভাঁটা উচ্ছেদ

ধলেশ্বরী তীরে অবৈধ ইটভাঁটা উচ্ছেদ শুরু হয়েছে। মঙ্গলবার মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম নদী বন্দরের গোপচর মৌজায় ধলেশ্বরী তীরের এনবিএম ও জেবিএম নামের দু’টি ইটভাটি উচ্ছেদ করা হয়। এনবিএম ইটভাটি’র মালিক হাজী আবুল হাসেম এবং হাজী জয়নাল আবেদীনের মালিকানাধীন জেবিএম। উচ্ছেদেরে সময় ইটভাটির লোকজন পালিয়ে যায়। পরে বিআইডব্লিউটিএ এসকেভেটার দিয়ে উচ্ছেদ পরিচালনা করা হয়। অস্ত্রধারী আনসার নিয়ে এই উচ্ছেদ কাজে নেতৃত্ব দেন বিআইডব্লিউটিএর যুগ্ম পরিচালক আরিফ উদ্দিন।

আরিফ উদ্দিন জানান, বিআইডব্লিউটিএর অনুমোদন না নিয়েই অবৈধভাবে ইটভাটি তৈরী করে। এই উচ্ছেদে নদী তীরের জমি উদ্ধার ছাড়াও নদী গতিপথ যথাযথ থাকবে এবং পরিবেশ রক্ষা পাবে। তিনি আরও জানান, উচ্ছেদের এক সপ্তাহ আগে অবৈধ এই ভাটি সরিয়ে নেয়ার নোটিশ করা হয়। কিন্তু সরিয়ে না নেয়ায় এই পদক্ষেপ নিতে হয়।

বিআইডব্লিউটিএর পোর্ট ও ট্রাফিক বিভাগের এই যুগ্ম পরিচালক জানান, মুন্সীগঞ্জের মিরকাদিম বন্দর থেকে নারায়ণগঞ্জের ধর্মগঞ্জ পর্যন্ত পাঁচ কিলোমিটার এলাকায় চলবে এই উচ্ছেদ। ধলেশ্বরী ও বুড়িগঙ্গা নদীর দু’পাড়ে অবৈধ ৫০টি ইটভাটা রয়েছে। যা নদী ও পরিবেশের জন্য ক্ষতিকারক। এই ভাটিগুলো ক্রমে ডুকে পরছে নদীর ভেতরে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.