শিমুলিয়াঘাটে ঘরমুখো মানুষের ঢল

শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের শিমুলিয়া ঘাটে ঈদে ঘরমুখো মানুষের ঢল। দক্ষিণাঞ্চলের এ রুটে রবিবার ভোর থেকে এ ভীড় দেখা যায়। বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) সহকারী পরিচালক শাহাদাত হোসেন দ্য রিপোর্ট টুয়েন্টিফোর ডটকমকে জানান, সকালে শিমুলিয়া ঘাটে ছিল ঘরমুখো যাত্রীদের উপচেপড়া ভীড়। সকাল ১০টার দিকে শিমুলিয়াঘাটে যাত্রীবাহী প্রায় ৬০টি বাস, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস, জিপ ও মিনি পিকআপভ্যান মিলিয়ে পারাপারের অপেক্ষায় ছিল ৫ শতাধিক যানবাহন। ঈদ উপলক্ষে নৌরুটে সব মিলিয়ে যানবাহন পারাপার করছে ১৭টি ফেরি। শিমুলিয়া ও কাওড়াকান্দির উভয়ঘাটে রয়েছে ৪ শতাধিক সিবোট ও ছোট-বড় মিলিয়ে লঞ্চ রয়েছে ৮৪টি।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসির) ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) আব্দুল আলীম দ্য রিপোর্টকে জানান, পদ্মায় প্রবল স্রোতের কবলে ফেরিগুলোর গন্তব্যে পৌঁছতে প্রায় ৩০ মিনিট বেশি সময় লাগছে। তবে এবার ঈদে ঘরমুখো যাত্রীদের পদ্মা পারাপারে সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে না। নিয়ম অনুযায়ী ফেরি পারাপার করলে সবাই স্বস্তিতে বাড়ি যেতে পারবেন। এবার ঈদে আরও ৩টি ফেরি যুক্ত হওয়ায় নৌরুটে মোট ১৭টি ফেরিতে যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। একটি ভিআইপি ফেরি রয়েছে।

মাওয়া ফাঁড়ির ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোশারফ হোসেন দ্য রিপোর্টকে জানান, ঈদে যাত্রীদের নিরাপদ যাত্রায় শিমুলিয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুট আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা সতর্ক অবস্থানে রয়েছে। পদ্মায় পাহারা দিচ্ছে নৌ-পুলিশ। নৌরুটে এবার আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ৫০০ সদস্য ঈদ যাত্রায় নিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছেন।

দ্য রিপোর্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.