দুধের সাথে বিষ খাইয়ে আট মাসের শিশুকে হত্যা করল পাষান্ড মা!

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার চকপাড়া গ্রামে আট মাসের শিশু আদনান লাবিব সাদকে ফিডারের দুধের সঙ্গে বিষ মিশিয়ে হত্যা করেছে সামিয়া আক্তার বিথী (২০) নামের এক পাষন্ড মা। লোমহর্ষক হত্যাকান্ড ঘটেছে গতকাল বুধবার দিবাগত রাতে ।

শিশুটির বাবার নাম হারুনুর রশিদ । প্রায় আড়াই বছর আগে সামিয়া ও হারুনের বিয়ে হয়। হারুন পেশায় পোল্ট্রি ব্যবসায়ী। তাদের সংসারে আটমাস আগে জন্ম নেয় একমাত্র ছেলে আদনান লাবিব সাদ। এলাকাবাসী ঘাতক মাকে পুলিশে সোপর্দ করেছে। সামিয়া মুন্সিগঞ্জ জেলার টুঙ্গীবারী থানার সোনা রং গ্রামের আ. করিম বেপারীর মেয়ে ও চক পাড়া দাখিল মাদ্রাসার দশম শ্রেণীর ছাত্রী।

শিশুটির বাবা হারুন জানায়, বিথী বেপরোয়া চলাফেরা করতো। পরিবারের কারো কথা সে মানতোনা। ছোট খাট বিষয়ে তার সঙ্গে ঝগড়ায় জরিয়ে পড়ত। স্ত্রীর উশৃংখল আচরণের জন্য শশুর শ্বাশুড়িকে খবর দিলেও তারা কোন খোজ খবর নেননি। এদিকে জন্মের পর থেকে তার সাদ ঠান্ডা জনিত রোগে ভুগছিল। ছেলে কান্নাকাটি, সংসারের কাজকর্ম বিথীর ভাল লাগতোনা বলে তাদের মধ্যে জগড়ার সময় বিথী ছেলেকে হত্যার হুমকি দিত। গতকাল বুধবার রাত এগারটার দিকে আমি ব্যবসায়ীক কাজ শেষে বাড়ী ফিরলে স্ত্রী জানায় সাদ রক্ত বমি করে ঘুমিয়ে পড়েছে। হাত মুখ ধুয়ে ঘরে গিয়ে হারুন দেখতে পায় তার ছেলের শরীর ঠান্ডা হয়ে গেছে মুখ দিয়ে ফেনা বের হয়ে আসছে। দুধের বোতল থেকে কীটনাশকের গন্ধ বের হচ্ছে। দ্রুত হাসপাতালে নেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীপুর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সৈয়দ আজিজুল হক নিহতের বাবার বরাত দিয়ে জানান, বিথি খুবই খিটখিটে ও বদমেজাজ স্বভাবের। বুধবার রাতে ঝগড়ার পর স্বামী ঘর থেকে বেরিয়ে গেলে বিথি রাত ১১টার দিকে ঘরে থাকা কীট নাশক দুধের ফিডারে মিশিয়ে সাদকে খাইয়ে দেয়। এর কিছু সময় পরই সাদ বমি করে ও মারা গেছে। কিন্তু সাদ এত দ্রুত মারা যাবে বুঝতে পারেননি বলে যানান বিথি।

খবর পেয়ে পুলিশ রাতেই শিশুর লাশ উদ্ধার ও তার মা বিথিকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে বিথি দুধে বিষ মিশিয়ে তার সন্তানকে হত্যার বিষয়টি পুলিশের কাছে স্বীকার করেছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় সাদের বাবা মো. হারুন অর রশিদ বাদি হয়ে শ্রীপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে আটক বিথিকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।

শ্রীপুর থানার ওসি আসাদুজ্জামান জানান, সাদের বাবা বাদী হয়ে বিথীর বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করলে রাতেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ বিথীকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

সিটিজিক্রাইম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.