মুন্সীগঞ্জের ঈদ বাজার জমজমাট

ঈদকে কেন্দ্র করে জমে উঠেছে মুন্সীগঞ্জের ঈদ বাজার। সব বয়সের নারী-পুরুষেরা ভিড় জমাচ্ছেন মুন্সীগঞ্জ শহরসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার মার্কেটেগুলোতে।

মুন্সীগঞ্জের প্রধান অর্থকরী ফসল আলু এবার নষ্ট হয়ে যাওয়ায় এর বিরুপ প্রভাব পড়েছে ঈদ বাজারের ওপর। ঈদে কেনাকাটায় দাম একটু বেশি হলেও সন্তুষ্টি প্রকাশ করছেন ক্রেতা-বিক্রেতারা।

ঈদে প্রিয়জনের মুখে হাসি ফুটাতে কেনা কাটায় ব্যস্ত সবাই। মুন্সীগঞ্জ শহরের মসজিদ মার্কেট, জিএইচসিটি সেন্টার, সিপাহীপাড়া, মিরকাদিমসহ জেলার বিভিন্ন উপজেলার বড় মার্কেটেগুলো এখন ক্রেতাদের উপচে পড়া ভিড় লেগেছে।

কসমেটিকস, গহনা, জুতা, টুপি, আতর, থ্রিপিছ, কাপড়, পাঞ্জাবীসহ সব ধরণের পণ্যের দোকানেই উপচে পড়া ভিড় লেগেছে। সব ধরণের এবং সব বাজেটের জামাকাপড়, শাড়ি ইত্যাদি এখন মুন্সীগঞ্জেই পাওয়া যাচ্ছে। মুন্সীগঞ্জের মার্কেট গুলোতে মধ্যরাত পর্যন্ত চলছে বেচাকেনা। চাহিদামত সব কিছুই পাওয়া গেলেও এবার দাম একটু বেশি যাচ্ছে। দামাদামী করে কিনতে হচ্ছে তাদের।

ক্রেতা ফ্যাশনেবল মার্কেটিংয়ে ভারতীয় পোশাকের চাহিদা বেশি দেখা যায়। তবে দেশিয় পোশাক ও জামা কাপড়ের চাহিদাও রয়েছে এবং এর দামও তুলনামূলক কম। মেয়েরা মেচিং করে জুতা, জামা, জুয়েলারি কিনছেন। বেচা বিক্রি তুলনামূলক গত বছরের চেয়ে একটু কম। সব মিলিয়ে এবার ঈদের বাজার পরিস্থিতি ভাল বলেই জানালেন ক্রেতারা।

এদিকে ব্যবসায়ীরা জানালেন, মুন্সীগঞ্জের প্রধান অর্থকরী ফসল আলু ফলন ক্ষতিগ্রস্থ হওয়ায় এবার ঈদের কেনাকাটাতেও তার প্রভাব পড়েছে। তবে, দাম ক্রেতাদের নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রয়েছে বলে জানালেন ব্যবসায়ীরা।

পুর্ব পশ্চিম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.