মোল্লাকান্দির দুই গ্রামের সংঘর্ষে ককটেল বিস্ফোরণে আহত ২০, গুলিবিদ্ধ ১

মুন্সীগঞ্জের চরাঞ্চলের মোল্লাকান্দির ইউনিয়নের নোয়াদ্ধা ঢালি কান্দি ও মুন্সীকান্দি গ্রামবাসীদের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৯ জুন) সন্ধ্যায় স্থানীয় পুরা বাজারে দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এক পর্যায়ে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই গ্রামের মধ্যে সংঘর্ষে রূপ নেয়। সন্ধ্যা থেকে গভীর রাত পর্যন্ত চলে এই সংঘর্ষ।

এতে দুপক্ষের লোকজন বিপুল পরিমাণ ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। বসতবাড়িতে চালানো হয় ব্যাপক ভাঙচুর ও লুটপাট। এতে প্রায় দুই শতাধিক ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় পক্ষের ২০ জন আহত হয়েছে ও ২০টি বসতঘরে ব্যাপক ভাঙচুর চালানো হয়েছে। এ সময় স্বর্ণ, নগদ অর্থ ও টিভি লুটের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আহতদের মধ্যে রফি ঢালিকে (৫০) গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অপর আহতদের মধ্যে স্বপন মেম্বারে স্ত্রী সুনিয়া বেগম (৩০), শাশুড়ি বিউটি বেগম (৫৫), ও ছোট বোন লিপি (৩২), প্রতিবন্ধী নার্গিস বেগমসহ (৬০) অন্যান্য আহতদের বেসরকারি বিভিন্ন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, স্থানীয় বিএনপি নেতা উজির ঢালির সাথে মোল্লাকান্দি ইউপি সদস্য ও আওয়ামী লীগ নেতা স্বপন দেওয়ানের মধ্যে দীর্ঘ দিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল।

উক্ত বিরোধের জের ধরেই এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় এলাকায় দুপক্ষের লোকজনের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার এস আই আব্দুস সালাম জানান, মুন্সীকান্দি গ্রামের উজির আলী ও একই গ্রামের ইউপি সদস্য স্বপন দেওয়ানের সাথে পূর্ব বিরোধের জেরে এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। কোনো পক্ষই এ ব্যাপারে কোনো লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.