মুল সাইটে যাওয়ার জন্য ক্লিক করুন

পাঠক সংখ্যা

  • 9,749 জন

বিভাগ অনুযায়ী…

পুরনো খবর…

পদ্মা সেতু: এ মাসেই বসছে তিন স্প্যান

এ মাসেই পদ্মা সেতুতে বসছে আরো তিনটি স্প্যান। এর আগে ১৫টি স্প্যান বসানোর মাধ্যমে ৬.১৫ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের সেতুটির দুই হাজার ২৫০ মিটার বা দুই কিলোমিটারের বেশি দৃশ্যমান হয়েছে। আর এ মাসে তিনটি স্প্যান বসে গেলে সেতুর প্রায় অর্ধেক দৃশ্যমান হবে।

পদ্মা সেতুর একজন দায়িত্বশীল প্রকৌশলী জানান, আগামী ১৫ নভেম্বরের আগে পদ্মা সেতুর ১৬তম স্প্যান বসতে যাচ্ছে। ‘৪ডি’ নম্বর স্প্যানটি ২২ ও ২৩ নম্বর খুঁটিতে বসানো হবে। সে লক্ষ্যে এখন শেষ সময়ের প্রস্তুতি চলছে। এ ছাড়া ১৬ ও ১৭ নম্বর খুঁটিতে ‘৩ডি’ এবং ২১ ও ২২ নম্বর পিলারের ওপর আরো একটি স্প্যান এ মাসেই বসানো হবে। তিনি আরো জানান, ২২ ও ২৩ নম্বর খুঁটির জন্য তৈরি করা ‘৪ডি’ স্প্যানটি ২৮ ও ২৯ নম্বর খুঁটির কাছে প্ল্যাটফর্ম তৈরি করে নদীর তীরে রাখা হয়েছে। কিন্তু নদী চ্যানেলের নাব্যতার কারণে স্প্যানটি সেখান থেকে তুলে এনে স্থাপনে দেরি হচ্ছে। তবে দিন-রাত ড্রেজিং করে ওই এলাকায় নাব্যতা ফেরানোর চেষ্টা চলছে। আগামী ১৫ নভেম্বরের আগে ২২ ও ২৩ নম্বর পিলারের ওপরে বসানো হবে স্প্যান ‘৪ডি’।

‘৩ডি; স্প্যানসহ আরো তিনটি স্প্যান একেবারেই প্রস্তুত রয়েছে ওয়ার্কশপের ইয়ার্ডে। ওয়ার্কশপের ইয়ার্ডে ‘৬এ’, ‘৬বি’, ‘৫সি’ ও ‘৩ডি’ নম্বর স্প্যান বেশ কিছুদিন ধরে তৈরি আছে। উচ্চ ক্ষমতার ড্রেজারে রাত-দিন ড্রেজিং করায় নাব্যতা সংকট এখন অনেক কমে এসেছে। এদিকে ৪১টি স্প্যানের মধ্যে মাওয়ায় এসেছে ৩১টি স্প্যান। এর মধ্যে ১৫টি স্প্যান স্থাপন করা হয়েছে। সেতুর ৪২টি খুঁটির মধ্যে ৩২টি প্রস্তুত হয়ে গেছে। বাকি খুঁটির কাজও দ্রুত এগিয়ে চলেছে। এখন শুধু পাইলের ওপর ক্যাপিংয়ের কাজ বাকি। সেতুর নিচের অংশে রেলওয়ে স্ল্যাব বসে গেছে ৩৬১টি আর ওপরের ধাপে রেলওয়ে স্ল্যাব বসেছে ৬১টি। রেলওয়ে দুই হাজার ৯৫৯টি প্রিকাস্ট স্ল্যাব প্রয়োজন হবে। এর মধ্যে ২৮৯টি স্ল্যাব তৈরির কাজ শেষ হয়েছে এবং বাকি স্ল্যাব আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে শেষ হবে। অন্যদিকে দুই হাজার ৯১৭টি প্রিকাস্ট রোডওয়ে ডেক-স্ল্যাবের মধ্যে এক হাজার ৫৫৩টির কাজ শেষ হয়েছে।

কালের কন্ঠ

Leave a Reply

You can use these HTML tags

<a href="" title=""> <abbr title=""> <acronym title=""> <b> <blockquote cite=""> <cite> <code> <del datetime=""> <em> <i> <q cite=""> <s> <strike> <strong>

  

  

  

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.