লৌহজং থানার নির্মাণাধীন ভবন ধসে শ্রমিক নিহত

মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের মালিরঅংক এলাকায় নির্মাণাধীন থানা ভবনের ছাদ ধসে মন্নাফ নামে এক শ্রমিক নিহত এবং আরও চারজন আহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুর আড়াইটায় ভবনের বারান্দার ছাদ ঢালাই ধসে হতাহতের এ ঘটনা ঘটে। মন্নাফ নাটোরের সিংড়া উপজেলার কৈ গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। আহতরা হলেন- রাকিব, হাসান, শিহাব ও অজ্ঞাতপরিচয় একজন। তাদের সবার বাড়ি নাটোরের সিংড়ায় বলে জানা গেছে।

ঘটনার পরপরই লৌহজং ইউএনও কাবিরুল ইসলাম খানসহ উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। ঘটনা তদন্তে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের নির্দেশে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। আহত শ্রমিক হাসান জানান, ছাদ ঢালাইয়ের কাজ চলাকালে মন্নাফ ও তিনি বারান্দার নিচে কাজ করছিলেন এবং ওপরে ছিলেন আরও ১০ শ্রমিক। হঠাৎ পিলারসহ ছাদ ধসে পড়লে মন্নাফ স্তূপের নিচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান।

ইউএনও কাবিরুল ইসলাম খান বিকেলে সমকালকে জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, লৌহজং

থানা ভবনের নির্মাণ কাজে যুক্ত ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের অনিয়ম ও গাফিলতি রয়েছে। বারান্দার ছাদ ঢালাই করতে গিয়ে পিলারসহ ধসে পড়ায় বোঝা যাচ্ছে, পিলারগুলো মজবুত করে নির্মাণ করা হয়নি।

লৌহজং থানার ওসি মো. আলমগীর হোসাইন জানান, আহতদের লৌহজং উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

সমকাল

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.