শ্রীনগরে সরকারী পাকা রাস্তার উপর ফের রাতের আধারে ভবন নির্মান

আরিফ হোসেনঃ শ্রীনগরে করোনা ভাইরাসের কারণে ছুটির সুযোগ নিয়ে সরকারী রাস্তার উপর ফের রাতের আধারে পাকা ভবন নির্মান শুরু করেছে এক ব্যবসায়ী। শুক্রবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার দেউলভোগ বাজার-রেজিষ্ট্রি অফিসের রাস্তার প্রায় ৪ ফুট দখল করে প্রিন্টিং ব্যবসায়ী আবুল হোসেন নতুন করে ছাদ ঢালাইয়ের কাজ শুরু করে। এসময় স্থানীয়রা ২ ইউপি সদস্য কাজের বাধা দিতে গেলে আবুল হোসেন তাদের বাধা উপেক্ষা করে কাজ চালিয়ে যেতে থাকে।

আবুল হোসেন এর আগে রাস্তার একাংশ দখল করে পাকা ভবন নির্মাণ কাজ শুরু করলে গত ১২ জানায়ারী বিকালে শ্রীনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিগার সুলতানা মোবাইল কোর্ট বসিয়ে ১০ হাজার টাকা জরিমানা করে এবং পাকা রাস্তার উপর থেকে স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার নির্দেশ দেন।

স্থানীয়রা জানায়, আবুল হোসেন রাস্তা দখল করে শুধু পাকা ভবনই নির্মান করছে না সে রাস্তা পার হয়ে খালের উপর ইটা-বালুর রাবিশ ফেলে তাও দখল করে নিচ্ছে। সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করার পর আবুল হোসেন প্রায় ২ সপ্তাহ স্থাপনার নির্মান কাজ চালিয়ে চান। সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিগার সুলতানা ফের আবুল হোসেনকে কাজ বন্ধ করার নির্দেশ দিলে সে উচ্চ আদালতে রিট করে। কিন্তু রিটের কোন আদেশ হওয়ার আগেই সে শুক্রবার রাতের আধারে পুনরায় রাস্তা দখল করে কাজ শুরু করে।

শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী রাজিউল্লাহ জানান, রাস্তাটি এলজিইডির তালিকা ভূক্ত। সরকারী পাকা রাস্তার দুই পাশে ন্যূন্যতম ৪ ফুট সোল্ডার থাকতেই হবে। মালিকানা দাবী করে সরকারী পাকা রাস্তা কেউ দখল করতে পারেনা। তাকে রাস্তার উপর থেকে স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য চিঠি দেওয়া হবে।

শ্রীনগর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নিগার সুলতানা বলেন, লোক পাঠাচ্ছি। এখনই কাজ বন্ধ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.