মুন্সীগঞ্জে পত্রিকা বিক্রয়কর্মীদের খাদ্যসামগ্রী উপহার দিলো জেলা প্রশাসন

মুন্সীগঞ্জে করোনাভাইরাসে সৃষ্ট দুর্যোগে কর্মহীন হয়ে পড়া দৈনিক পত্রিকা বিক্রয়কর্মীদের খাদ্যসামগ্রী উপহার দিয়েছেন জেলা প্রশাসন। রোববার বিকেলে মুন্সিগঞ্জ সার্কিট হাউজে সদর উপজেলার ২৯ জন বিক্রয়কর্মীর মধ্যে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদার।

খাদ্যসংকটে পড়া জেলার কর্মীহীন হকাররা একত্র হয়ে প্রথম আলোর মাধ্যমে জেলা প্রশাসকের কাছে সরকারি সহযোগিতা চায়। এসব হকারদের একটি তালিকা তৈরি করে জেলা প্রশাসককে দেওয়া হলে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেন তিনি।

তালিকাভুক্তা হকারদের ১০ কেজি চাল, দুই কেজি মসুর ডাল, এক লিটার ভোজ্য তেল ও একটি করে সাবান দেওয়া হয়। এসব খাবারে প্রতিটি পরিবার অন্ত এক সপ্তাহ চলতে পারবে।

খাদ্যসামগ্রী উপহার পাওয়া হকাররা বলেন, দৈনিক পত্রিকা বিক্রি করে যতটুকু আয় হত সেটা দিয়েই কোনরকমে সংসার চলত। সরকারি সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর থেকে তাদের কোন কাজ নেই। এতে করে প্রতিটি পরিবারর ধার-দেনার করে সংসার চালাচ্ছেন। খাদ্যসংকটে পড়ে দুশ্চিন্তায় ছিলেন তাঁরা। জেলা প্রশাসক থেকে প্রাপ্ত সহযোগিতায় অন্তত একসপ্তাহের সে চিন্তার অবসান হয়েছে তাঁদের।

খাদ্যসামগ্রী বিতরণের সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সাইফুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা মেজিস্ট্রেট খান মুহাম্মদ নাজমুজ শোয়েব, অতিরিক্তি জেলা প্রশাসক (সার্বক) দিপক কুমার রায়, মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ফারুক আহম্মেদ।

জেলা প্রশাসক মনিরুজ্জামান তালুকদার বলেন, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর নির্দেশ দেশের কোন মানুষ না খেয়ে থাকবেনা। তাই কর্মহীন প্রত্যেকটি পরিবারকে খাদ্যসহায়তা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ বাস্তবায়ন ও নিজের দায়িত্ববোধ থেকে পত্রিকার হকারসহ পিছিয়েপড়া জনগোষ্ঠীর যারাই খাদ্যসংকটে আছে, প্রত্যেকে সহযোগিতা করা হবে। জেলার আরো ৫ টি উপজেলার হকারদের পর্যায়ক্রমে প্রধানমন্ত্রীর উপহার পৌঁছে দেওয়া হবে।

নয়া দিগন্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.