লৌহজংয়ে পানিতে ডুবতে বসা পাকা ধান কেটে গোলায় তুলে দিল ছাত্রলীগ

কালবৈশাখীর ঝড় আর বৃষ্টিতে কৃষকের পাকা ধানের জমিতে জমতে শুরু করেছে হাঁটুপানি। করোনার কারণে দেশে চলছে শ্রমিক সংকট। যানবাহনের অভাবে শ্রমিকরা এক জেলা থেকে অন্য জেলায় যেতে পারছে না। তার ওপর আবার নতুন পানি আসার সময় হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে যদি জমিতে পানি জমে যায় তবে কৃষকের পাকা ধান আর গোলায় তোলা হবে না। এই অসহায় অবস্থায় লৌহজং উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের মৌছা ও শিমুলিয়া গ্রামের প্রায় ২ একর ৪০ শতক জমির পাকা ধান কেটে কৃষকের গোলায় তুলে দিলেন লৌহজং উপজেলা আওয়ামী যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মর্তুজা খানের নের্তৃত্বে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

করোনাকালে বাস চলাচল বন্ধ থাকায় উত্তরবঙ্গ থেকে কোনো শ্রমিক আসতে পারছে না ধান কাটার এই মৌসুমে। পরিবহন সেক্টর বন্ধ থাকায় বেকায়দায় পড়েছে সাধারণ শ্রমজীবি মানুষ ও কৃষকরা। শ্রমিক সংকটের পাশাপাশি কালবৈশাখী তাণ্ডব তো আছেই। মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের এমনই পরিস্থিতিতে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. মুর্তুজা খান যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মীদের নিয়ে উপজেলার মৌছা গ্রামের প্রায় ২ একর ৪০ শতক জমির পাকা ধান কেটে কৃষকের গোলায় তুলে দেন।

মো. মর্তুজা খান বলেন, আসলে করোনা একটি বৈশ্বিক মহামারি। এই করোনাভাইরাসের ফলে বাংলাদেশের অবস্থা দিন দিন খারাপ হচ্ছে। মানুষজন অসহায় হয়ে পড়ছে। আমরা অসহায়ের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে, আমাদের স্থানীয় এমপি অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি এবং লৌহজং উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুর রশিদ শিকদারের দিক নির্দেশনায় আমি দিনরাত চেষ্টা করে যাচ্ছি সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়াতে।

কালের কন্ঠ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.