মুন্সিগঞ্জে স্কুল ছাত্রী ধর্ষকের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

‘ধর্ষকের আস্তানা বাংলায় হবে না, ধর্ষক তুই জানোয়ার, বাংলার মাটি এখনই ছার’। এ শ্লোগনে মুন্সিগঞ্জ সদর উপজেলায় পঞ্চম শ্রেণির শিক্ষার্থীকে (১৩) ধর্ষণের দায়ে ধর্ষক মো. হৃদয় হাসান মোল্লার ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

রবিবার (৪ অক্টোবর) সকাল ১০টার দিকে মুন্সিগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে সড়কে এ মানববন্ধন করা হয়।

ধর্ষক মো. হৃদয় হাসান মোল্লা (২২) সদর উপজেলার চর বেশনাল এলাকার বাসিন্দা। ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থী শিলই ইউনিয়নের বাসিন্দা। সে স্থানীয় একটি কিন্ডারগার্টেন এ পঞ্চম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে।

সকাল ১০ টা থেকে বেলা ১১ টা পর্যন্ত এ মানববন্ধন হয়। এতে ভুক্তভোগী ওই শিক্ষার্থীর স্বজন, তার সহপাঠী ছাড়াও সরকারি হরগঙ্গা কলেজ, বিভিন্ন স্কুল ও মাদ্রাসার কয়েক শতাধিক শিক্ষার্থীদের অংশ নেয়। এ সময় তাদের হাতে ধর্ষণ ও ধর্ষকের বিরুদ্ধে নানান শ্লোগানে ভরা ব্যানার ও ফেস্টুন দেখা যায়।

এসময় মানববন্ধনকারীরা বলেন, এদেশে ধর্ষণ মহামারী আকার ধারণ করেছে। শিশু থেকে বৃদ্ধা সব শিশু, মেয়ে ও নারীরা কোথাও নিরাপদ নয়।স্কুল, কলেজ, গির্জা, রাস্তা-ঘাটে প্রতিনিয়ত ধর্ষণের ঘটনা ঘটে চলেছে। ধর্ষকদের উপযুক্ত শাস্তি না হওয়ায় তারা আরও বেপরোয়া হয়ে উঠছে। এসময় পঞ্চম শ্রেণির ওই শিক্ষার্থীর ধর্ষক হৃদয় মোল্লাসহ সকল ধর্ষকদের সর্বোচ্চ সাজা ফাঁসি দাবি করেন মানববন্ধন কারীরা।

উল্লেখ, গত ১৫ সেপ্টেম্বর ওই শিক্ষার্থী সকালে একাই শিলই এলাকার নানী বাড়ি যাচ্ছিল। দেওয়ানকান্দি ব্রিজের কাছে গেলে আগে থেকে ওত পেতে থাকা ধর্ষক হৃদয় মোল্লা শিক্ষার্থীর হাত মুখ চেপে সিএনজি করে নিয়ে যায়। এদিন বিকেল ৪ টার দিকে বেশনাল কবরস্থানের পাশে রক্তাক্ত অবস্থায় ফেলে চলে যায়। খবর পেয়ে মেয়ের পরিবার তাকে উদ্ধার করে মুন্সিগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজে প্রেরণ করে। এ ঘটনায় গত ১৬ সেপ্টেম্বর মুন্সিগঞ্জ থানায় একটি ধর্ষণ মামলা হয়েছে। পরে একইদিনে ধর্ষক হৃদয়কে পুলিশ আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

দৈনিক অধিকার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.