সিরাজদিখানে সাবেক বিএনপি নেতার বিরুদ্ধে সরকারি খাল দখল চেষ্টার অভিযোগ

নাছির উদ্দিন: মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে বাসাইল ইউনিয়নের সাবেক বিএনপি নেতার শাহ আলমের বিরুদ্ধে সরকারী খাল দখল চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের চরবিশ্বনাথ ও ইসলামপুরের ভিতর দিয়ে বয়ে জাওয়া খালের জমি দখলটি নিয়ে চলছে দখলের পায়তারা। কোটি টাকার সরকারী এই খালটি স্থানীয় প্রভাবশালী চক্র নানা কৌশলে খাল উল্লেখ না করে প্রকল্প এনে সেখানে কালভার্ট নির্মন করে দখলে নেয়ার পায়তার করছে। এবিষয়ে মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের বরাবর অভিযোগ করা হয়েছে বলে জানায় এলাকাবাসী।

অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, স্থানীয় প্রভাবশালীরা ভূমি উন্নয়নের নামে চরবিশ্বনাথ ও ইসলামপুরের ভিতর দিয়ে বয়ে জাওয়া খালটি বালু দিয়ে ভরাট করার চেষ্টা করছে। খালের কিছু যায়গা তার ব্যাক্তি মালিকান যায়গার পাশে হওয়ায় তা বালু দিয়ে ভরাট করা হয়েছে। আর কিছু যায়গার ময়লা আবর্জনা ফেতে তা ভরাট করছেল এই নেতা। ফলে স্থায়ীভাবে খালটি বিলিন হয়ে যাচ্ছে। একসময় খালটির অস্থত্ত আর পাওয়া যাবেনা। চর বিশ্বনাথ রসুলপুর পুর, ঘোড়া মারা, কেয়াইন, কালারায়ের চর বিস্তর্ণ এলাকার পানি এই খাল দিয়ে প্রবাহিত হয়। অন্য কোন পথ না থাকায়। হাজার হাজার একল তিন ফসলী কৃষি জমি চাষাবাদে হুমকির মুখে পরবে। তাই স্থানীয় কৃষকেরা দখলদারদের কাজে বাধা দিতে গেলে তাদের হুমকি ধামকিও প্রদান করা হয়।

সাবেক ইউপি সদস্য ও বিএনপি নেতা আলম বলেন, আমি কোন খাল দখল করিনাই। আপনাদের যা খুশি তাই লেখেন।

সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ ফয়েজুল ইসলাম জানান, আমরা খালের ব্যাপারে বেবস্থা নিচ্ছি। সেখানে জেলা পরিষদ থেকে একটি বরাদ্দ দেওয়া হয়েছিল। এসিল্যান্ড সেখনে গিয়েছিল সে ঠিকাদারকে তার কাগজপত্র নিয়ে আশার জন্য বলেছেন এবং কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.