শ্রীনগরে বাঘড়ায় রাস্তায় জনদুর্ভোগ

শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের তালুকদার বাড়ি ব্রিজের সামনে থেকে বাঘড়া ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত প্রায় এক কিলোমিটার ভাঙাচূরা বেহাল ইট সলিং রাস্তায় মানুষের চলাচলে দুর্ভোগ বেড়েছে। বেহাল রাস্তায় ওই এলাকার প্রায় কয়েক হাজার মানুষের প্রতিদিন যাতায়াত রয়েছে। দীর্ঘ ১০ বছরেও রাস্তার সংস্কার কাজ করা হয়নি।

সরেজমিনে দেখা গেছে, বাঘড়ার ওসমান তালুকদারের বাড়ির সামনে থেকে বইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত ওই রাস্তার এক পাশে অর্থাৎ পূর্ব পাশে রয়েছে খাল। খালের পাড় অংশে রাস্তার বিভিন্ন স্থানে বড় বড় ভাঙ্গন লক্ষ্য করা গেছে। এছাড়াও পুরো রাস্তা জুড়ে খানাখন্দ্বে ভরপুর। নাজুক রাস্তায় বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে অনেকটাই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে উঠেছে। যে কোনো সময় ঘটতে পারে দুর্ঘটনা।

অপরদিকে, রাস্তার পাশের খালটির বিভিন্ন অংশে ভরাট-দখল, স্থাপনা করাসহ ময়লা আবর্জনা ফেলার কারণে খালে পানি চলাচলে বাঁধাগ্রস্ত হচ্ছে। এতে করে এই এলাকার কৃষি আবাদি জমি হুমকির মুখে পরেছে।

ওই এলাকার ব্যবসায়ী এনায়েত হোসেন তালুকদার, দোকানি কামাল শিকদার, আলম সিদ্দিকীসহ অনেকেই বলেন, গত ১০ বছর আগে কাঁচা রাস্তায় ইট সলিংয়ের কাজ করা হয়েছিল। তবে ইউনিয়ন পরিষদের দিক থেকে প্রায় ১৫০ ফুট রাস্তা আরসিসি ঢালাই করা হলেও বাকি রাস্তা খানাখন্দ্বে ভরপুর। দুর্ভোগ লাঘবে রাস্তা সংস্কারের দাবি জানান এলাকাবাসী।

বাঘড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. আনোয়ার হোসেনে কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বেহাল রাস্তায় জনগণের চলাচলে দুর্ভোগের সৃষ্টি হচ্ছে এটা সত্য। এর আগে আমি একাধিক বার ইউনিয়ন পরিষদের সভায় রাস্তাটির সংস্কারের বিষয়ে প্রস্তাব করেছি। কিন্তু রহস্যজনক কারণে চেয়ারম্যান সাহেব এ বিষয়ে কোনো মন্তব্য করেনি বলে তিনি দুঃখ প্রকাশ করেন।

এ বিষয়ে বাঘড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম জানান, রাস্তার সংস্কার কাজের জন্য চেষ্টা চলছে। আশা করছি একাজে খুব শীঘ্রই বরাদ্দ হবে।

নিউজজি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.