সিরাজদীখানে নিখোঁজের ৩ দিনের মাথায় বিদ্যালয়েই মিললো শিক্ষকের ঝুলন্ত লাশ

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখানে নিখোঁজের তিন দিনের মাথায় এক শিক্ষকের গলায় ফাঁস দেয়া ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে ওই শিক্ষকের স্কুল থেকেই তাঁর লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ।

সিরজদীখান উপজেলার ইছাপুরা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের সিনিয়র শিক্ষক মোঃ আব্দুল রাজ্জাক (৫৫) গত বুধবার মনিং ওয়ার্ক করতে বের হয়ে নিখোঁজ হন। অনেক খোঁজাখোজি করেও তাঁর কোন সন্ধান পাওয়া যাচ্ছিলনা। অবশেষে শুক্রবার সন্ধ্যায় তাঁরই বিদ্যালয়ের একটি পরিত্যাক্ত ভবন থেকে গলায় ফাঁস দেয়া অবস্থায় পুলিশ লাশটি উদ্ধার করে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের কারণে আত্মহত্যা করে থাকতে পারে ওই শিক্ষক।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন জানান, বিদ্যালয়ের ওই পরিত্যাক্ত ভবনে বিয়ের অনুষ্ঠানের কাজে ব্যবহৃত পালকী রাখা ছিল। শুকবার সন্ধ্যার দিকে পালকীর মালিকরা পালকী নিতে আসলে তারা শিক্ষক আব্দুল রাজ্জাকের লাশটি দেখতে পেয়ে আমাকে জানান। আমি পুলিশে খবর দিলে সিরাজদীখান থানা পুলিশ এসে লাশটি উদ্ধার করে। নিহত মো. আব্দুল রাজ্জাক আমাদের বিদ্যালয়ের সরকারী কোয়াটাওে স্বপরিবারে বসবাস করত । সে বরগুনা জেলার বামনা থানার খুশমী চড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জাব্বারের ছেলে ।

সিরাজদীখান থানার অফিসার ইনচার্জ এসএম জালাল উদ্দীন জানান, ধারণা করা হচ্ছে পারিবারিক কলহের জেরে আত্মহত্যার করতে পারে ওই শিক্ষক। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.