মুন্সীগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জের সদর উপজেলায় রীমা আক্তার (২৫) নামে এক প্রবাসীর স্ত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার ভোর ৫টার দিকে মুন্সীগঞ্জ পৌরসভার রনছ এলাকায় ওই নারীর বসতঘর থেকে তার লাশ উদ্ধার করা হয়।

নিহত রীমা আক্তার রনছ এলাকার কাতার প্রবাসী সুজনের স্ত্রী। আনাস নামে তাদের ৪ বছরের এক পুত্র সন্তান রয়েছে।

এদিকে রীমাকে পরিকল্পিত হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছে রীমার পরিবার। নিহত রীমার চাচা কাওসার আহমেদ ও বোন তামান্না আক্তার জানান, দীর্ঘদিন যাবত নানা কারণে রীমার ওপর নির্যাতন করে আসছিল শ্বশুর-শাশুড়ি ও ননদরা। প্রবাসী স্বামীও নানা কারণে প্রায় কটুকথা বলত তাকে। শুক্রবার রাত ৪টার দিকে রীমা আত্মহত্যা করে মারা গেছে বলে আমাদের খবর দেওয়া হয়। আমরা ৫টার দিকে ঘটনাস্থলে এসে দেখি পুলিশ ওড়নায় ঝুলানো লাশ নামিয়ে খাটে রেখেছে। পরিকল্পিতভাবে শ্বশুরবাড়ির লোকজন রীমাকে হত্যা করেছে। আমরা এর বিচার চাই।

এ বিষয়ে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও রীমার শ্বশুরবাড়ির কাউকে পাওয়া যায়নি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিক জানান, স্থানীয় মাধ্যমে খবর পেয়ে ওই নারীর বসতঘর থেকে ফাঁসিতে ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছে সে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়া গেলে সে অনুযায়ী আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

ঢাকাটাইমস

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.