মিরকাদিমে বিস্ফোরণ, দগ্ধ মেয়রপত্নীর মৃত্যু

মুন্সিগঞ্জের মিরকাদিমে মেয়র আব্দুস সালামের বাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দগ্ধ মেয়রপত্নী কানন বেগম (৪০) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।শনিবার (১০ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে রাজধানীর শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটে লাইফ সাপোর্টে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নিহতের ভাই মো. রবিন।

চিকিৎসকের বরাত দিয়ে তিনি জানান, নিহতের শরীরের ৬০ ভাগ পুড়ে গিয়েছিল।

এর আগে শুক্রবার (০৯ এপ্রিল) তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ৭২ ঘণ্টার জন্য লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছিল।

এদিকে ওই ঘটনায় দগ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি অপর ১২ জনের মধ্যে পৌরসভার এক কর্মকর্তা মনির হোসেনসহ (৫০) দু’জন এখনও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার (৬এপ্রিল) রাত ৯টার দিকে পৌরসভার রামগোপালপুর এলাকায় কাউন্সিলর ও অন্যদের সাথে নিজ বাড়িতে পৌরসভার গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র নিয়ে আলোচনায় বসেন মেয়র আব্দুস সালাম। এর কিছুক্ষণ পরই বিকট শব্দে ওই বাড়িতে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে।

এতে মেয়রের স্ত্রী কানন বেগম (৪০), দুই প্যানেল মেয়র রহিম বাদশা (৫৫) ও আওলাদ (৪০), কাউন্সিলর দ্বীন ইসলাম, মো. সোহেলসহ যুবলীগ কর্মী তাইজুল (২০), মো. মোশারফ (৬২), মনির হোসেন (৫০), শ্যামল দাশ (৪৫), পান্না(৫০), কালু (৪০), কানন (৪০) ও মহিউদ্দিনসহ মোট ১৩ জন দগ্ধ হন।

ঘটনার পরই ১২ জনকে গুরুতর অবস্থায় শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউটে পাঠানো হয়েছিলো।

বিস্ফোরণেরর বিষয়টি প্রতিপক্ষের পরিকল্পিত হামলা হতে পারে বলে অভিযোগ তোলেন আহতদের স্বজনর। তবে ঘটনার পর সিআইডির বোমা নিষ্ক্রিয় টিম, ফায়ার সার্ভিস ও জেলা পুলিশ ঘটনাস্থলের আলামত পরীক্ষার পর বিস্ফোরণটি বাড়ির গ্যাস লাইনের লিকেজ থেকে হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন।

আরাফাত রায়হান সাকিব/জাগো নিউজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.