নিজেই অস্ত্র বের করে দিলেন ডিবির হাতে, দায় স্বীকার করে আসামির জবানবন্দি

মুন্সীগঞ্জ সদর থানার পূর্ব শিলমন্দি জসিম নগর এলাকার জনৈক আজিম পাইকের বাগান থেকে নুর মোহাম্মদকে (৩৫) গ্রেফতার করে মুন্সীগঞ্জ ডিবি। পরে তিনি বাগানের মাটির নিচ থেকে নিজেই একটি কালো রঙের ইন্ডিয়ান পয়েন্ট ২২ গান বের করে দেন ডিবির হাতে।

গত ১৮ মে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে একটি মারামারিতে অংশ নেন গ্রেফতারকৃত আসামি। ওই ঘটনায় চারজন যুবক অন্ত্রসহ মারামারিতে অংশ নিয়ে গুলি বর্ষণ করে। এ ঘটনা একটি ছবিও ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ঘটনায় ওই মামলার এজাহারনামীয় আসামি ছিলেন নুর মোহাম্মদ।

ডিবির অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোজাম্মেল হক মামুন বলেন, গ্রেফতারকৃত আসামি নূর মোহাম্মদ সোমবার আগের মামলার ঘটনার বিবরণ, অন্য সহযোগীদের নাম এবং ব্যবহৃত অস্ত্র সংক্রান্ত সকল বিষয় স্বীকার করে আদালতে কার্যবিধির ১৬৪ ধারা মোতাবেক দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। গ্রেফতারকৃত আসামি নুর মোহাম্মদকে আদালত জেলহাজতে পাঠিয়েছেন। গ্রেফতারকৃত আসামি নুর মোহাম্মদ বর্তমানে মুন্সীগঞ্জ জেলা কারাগারে আটক আছে। আসামি নুর মোহাম্মদ আগের মামলার ঘটনা, বর্তমান অস্ত্র মামলার ঘটনা, তার অন্য সহযোগী এবং এলাকার অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীদের বিষয়ে বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। যা তদন্ত করে যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। ঘটনায় ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার ও পলাতক আসামিদের গ্রেফতার করার জোর প্রচেষ্টা অব্যাহত আছে।

মোজাম্মেল হক মামুন জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ফরিদপুর জেলার সদরপুর থানা এলাকা থেকে মুন্সীগঞ্জ ডিবি পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। আসামিকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি আগের মামলার ঘটনার সাথে জড়িত থাকার দায় স্বীকার করেন। তার অন্য সহযোগী আসামিদের নামও প্রকাশ করেন। তাদের ব্যবহৃত অস্ত্র সম্পর্কে পুলিশের কাছে বিস্তারিত বিবরণ দেন। পরে জিজ্ঞাসাবাদে তিনি জানান, তার একটি অস্ত্র শিলমন্দি এলাকায় জসিম নগরে একটি বাগানের মধ্যে মাটির নিচে পুঁতে রাখা হয়েছে। তার স্বীকারোক্তি মোতাবেক রাত দেড়টার দিকে মুন্সীগঞ্জ ডিবি পুলিশের একটি টিম আসামিসহ এলাকার স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় ঘটনাস্থলে গেলে গ্রেফতারকৃত আসামি নুর মোহাম্মদ নিজ হাতে মাটির নিচ থেকে তার রেখে দেয়া অস্ত্রটি বের করে দেন। পরে ডিবি অস্ত্রটি তাদের হেফাজতে নেয়। এ ব্যাপারে থানায় একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়।

তিনি আরো জানান, এর আগে আরেক মামলার আসামি খোকনের (২৮) কাছে থাকা (ঘটনায় ব্যবহৃত) একটি একনলা বন্দুক উদ্ধার করা হয়। পরে এ ঘটনায় থানায় আরো একটি অস্ত্র মামলা দায়ের করা হয়।

নয়া দিগন্ত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.