লৌহজংয়ে বাড়িতে আশ্রয় দিয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা নারীকে ধর্ষণ

মুন্সিগঞ্জের লৌহজংয়ে ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা এক নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার দক্ষিণ মেদিনী মন্ডল গ্রামে একই গ্রামে ধর্ষণের এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় ধর্ষক কাবিল হোসেন বেপারীকে গ্রেফতার করে আজ মঙ্গলবার (১৩ জুলাই) দুপুরে মুন্সিগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে। কাবিল দক্ষিণ মেদিনী মন্ডল গ্রামের তোতা মিয়ার ছেলে।

লৌহজং থানা পুলিশের এসআই ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আশরা ফ হোসেন জানান, সোমবার সন্ধ্যায় মেদিনী মন্ডল গ্রামের এক অটোরিকশা চালক তার ৭ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রীকে নিয়ে শিমুলিয়া ঘাটে ঘুরতে যান। ঘাট এলাকায় ঘুরতে গিয়ে তার অটোর চার্জ শেষ হয়ে যায়। এসময় ওই রিকশাচালকের পূর্ব পরিচিত কাবিল হোসেন বেপারীর সঙ্গে দেখা হয়।

এ সময় কাবিল রিকশাচালকের স্ত্রীকে তার বাড়িতে আশ্রয় দেয়ার জন্য নিয়ে যায়। পরে রাত ১০টার দিকে অন্তঃসত্ত্বা ওই নারীকে কাবিল ধর্ষণ করে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকালে থানায় ধর্ষণের মামলা করেছে ওই নারীর স্বামী। মামলার পর পুলিশ ধর্ষক কাবিল হোসেনকে গ্রেফতার করে আদালতে পাঠিয়েছে।

এ ব্যাপারে লৌহজং থানা পুলিশের ওসি আলমগীর হোসাইন ঢাকা পোস্টকে বলেন, ধর্ষণের ঘটনায় মামলা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেফতার করে মুন্সিগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

ব.ম শামীম/ঢাকা পোষ্ট

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.