লৌহজংয়ে ভূয়া কারখানা দেখিয়ে দুই কোটি টাকা নিয়ে উধাও প্রতারক আশরাফুল

প্রায় শতাধিক এলাবাসির কাছ থেকে নগদ দুই কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে প্রতারক আশরাফুল ইসলাম । লৌহজং উপজেলার খিদির পাড়া ইউনিয়নের বাসুদিয়া গ্রামে দীর্ঘ দুই বছর বসবাস করে। সে এই সুযোগে পশু ডাক্তার হিসেবে পরিচিতি নিয়ে ভ‚য়া সেমাই, ঘি ও ভোজ্য তেলের কারখানা দেয়ার কথা বলে এবং ব্যবসায় অংশীদার দেয়ার কথা বলে লৌহজং ও টঙ্গীবাড়ি উপজেলার শতাধিক লোকের কাছ থেকে নগদ অর্থ হাতিয়ে নেয়। এরপর থেকে গত চার মাস ধরে উধাও হয়েছে এই ভ‚য়া পশু চিকিৎসক আশরাফুল। এলাকায় খোঁজ নিয়ে জানাযায়, পশু চিকিৎসায় আশরাফুলের কোন একাডেমিক সার্টিফিকেট ছিলোনা। খোঁজ নিয়ে জানাযায় এবং তার প্রতারনার শিকার টঙ্গীবাড়ি উপজেলার আউটশাহী ইউনিয়নের তস্তিপুর গ্রামের মো. হাফেজ ভূয়া জানান, বালিগাঁও বাজারে বিসমিল্লাহ প্লাজার আন্ডারগ্রাউন্ডে একটি রুমে কিছু নকল ভোজ্য তেল রেখে তার একটি তেলের কারখান রয়েছে বলে এলাকায় প্রচার চালিয়ে মানুষের দৃষ্ঠি কারে।

তার প্রতারনার শিকার সেলিনা বেগম, নাসির বেপারী, জাহাঙ্গীর খান, চঞ্চল দপ্তরী, বালিগাঁও বাজারের ব্যবসায়ী মো. সুমন, মো. সৈয়ব, তুষার সরকার, বাসুদিয়া এলাকার মুক্তার দেওয়ান, জুলহাস দেওয়ান এমন শতাধিক ব্যাক্তির কাছ থেকে নগদ দুই কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়। শুধু টাকা নিয়ে ক্ষ্যন্ত হয়নি প্রতারক আশরাফ সাথে প্রবাসী মো. আমিনূল ইসলামের বিবাহিত স্ত্রী দুই সন্তানের জননীকে নিয়ে উধাও হয়েছে। জানাযায় আশরাফুল ব্যাংক এশিয়া বালিগাঁও শাখা থেকে ৫৪ লাখ টাকা লোন নিয়ে বালিগাঁও পেট্রোলপাম্পের পাশে একটি ভবন নির্মান করেন। পালিয়ে যাওয়ার আগে ব্যাংক লোনের কথা গোপন করে বাড়িটি সালমান খান মোয়াজ্জেম ও মো. হাজিদ খানের কাছে সাবকলা বিক্রি করে যান। পরে আশরাফুল তার নিজ এলাকায় গাইবান্দা জেলার সাদুল্লাপুর থানার মরুয়াদহ গ্রামে গিয়ে এলাকাবাসির কাছ থেকে প্রতারনা করে নিয়ে যাওয়া টাকা ফেরত না দেয়ার জন্য ফন্দি আটে। এলাকায় গিয়ে বিভিন্ন মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভ‚য়া তথ্য দিয়ে এলাকায় বিভ্রান্তির সৃষ্ঠি করছে।

এই বিষয়ে প্রতারক আশরাফুল ইসলামকে আসামী করে লৌহজং থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। এ বিষয়ে লৌহজং থানার অফিসার ইনচার্জ মো. আলমঙ্গীর হোসাইন জানান এমন একটি অভিযোগ দেয়া হয়েছে বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি। ঘটনা সত্য হলে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গ্রামনগর বার্তা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.