‘ফেরিঘাট সরাতে দেবে না সেতু কর্তৃপক্ষ’

পদ্মা সেতুর প্রকল্প এলাকায় আর কোনও ফেরিঘাট স্থানান্তরের অনুমতি দেওয়া হবে না। তবে, বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) ও বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) চাইলে প্রকল্প এলাকার বাইরে যেকোনও স্থানে ঘাট স্থানান্তর করতে পারে। এতে পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষের কোনও আপত্তি নেই।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) দুপুরে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য জানিয়েছেন পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম।

তিনি বলেন, পদ্মা সেতুর কাছে ফেরি কোনও বিষয় নয়। এটা আমরা আগেও বলেছি। এ বিষয়ে আমরা বিআইডব্লিউটিসির যে চিঠি পেয়েছিলাম; তার উত্তর দিয়েছি।

পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম

এক প্রশ্নের জবাবে শফিকুল ইসলাম বলেন, সরকার যদি মনে করে পদ্মা সেতুর নদীশাসনের কাজ পরে করবে, আগে সেখানে ঘাট স্থানান্তর করবে, তাহলে সেটা করতে পারে। আমাদের সে বিষয়ে কিছু বলার নেই।

প্রসঙ্গত, গত ২৩ জুলাই সকালে পদ্মা সেতুর ১৭ নম্বর পিলারে রো রো ফেরি শাহজালাল ধাক্কা দিলে বিআইডব্লিউটিসির গঠিত তদন্ত কমিটি ফেরিঘাট স্থানান্তরের সুপারিশ করে। সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে ফেরিঘাট স্থানান্তরের বিষয়ে পদ্মা সেতুর প্রকল্প পরিচালককে চিঠি দেয় বিআইডব্লিউটিসি।

এদিকে ফেরিঘাট স্থানান্তর পদ্মা সেতুর জন্য ঝুঁকিপূর্ণ হবে বলে জানিয়েছেন সেতু প্রকল্প সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীরা। ফেরিঘাট স্থানান্তরের সুপারিশের যৌক্তিকতা নিয়ে বিআইডব্লিউটিসির চেয়ারম্যান বলছেন, ‘ঘাট সরানো অযৌক্তিক। এত কোটি টাকা খরচ করে ঘাট সরানো ঠিক হবে না।’

বাংলা ট্রিবিউন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.