শ্রীনগরে মোবাইল চুরির অপবাদে নারীকে মারধর

শ্রীনগর উপজেলার বাঘড়া এলাকায় মোবাইল ফোন চুরির অপবাদ দিয়ে পারুল বেগম (৪০) নামে নারীকে মারধর করা হয়েছে। এ ঘটনায় পূর্ব বাঘড়া এলাকার হামেদ শেখ (৫০), ওবায়দুল হক (৪০), মান্নান মোল্লা (৪৫), নাজিম (২৩), লাকী বেগম (৩৫), আক্তার হোসেনসহ (৪০) অজ্ঞাত কয়েকজনের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। গত মঙ্গলবার সকালের দিকে পূর্ব বাঘড়ায় এই মারধরের ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই দিন লাকী বেগমের বাবা মারা যায়। মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে প্রতিবেশী ও এলাকার অনেকেই ওই বাড়িতে যায়। তার কিছুক্ষণ পর শুনতে পাওয়া যায় লাকী বেগমের মোবাইলফোন চুরির ঘটনায় পারুলকে আটক করে রাখা হয়েছে। পারুল পার্শ্ববর্তী ভাগ্যকুল এলাকার উত্তর কামারগাঁওয়ের শাহ আলম তালুকদারের স্ত্রী। এ সময় আব্দুল হামেদসহ বেশ কয়েকজন পারুলকে চুরির অপবাদ দিয়ে হেনস্থা করে। পারুলের পরিবার খবর পেয়ে পুলিশের সহায়তায় পারুককে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

ভূক্তভোগী পারুল বেগম বলেন, লাকী বেগম আমার পরিচিত সুবাদে তার বাবার মৃত্যুর খবর পেয়ে ওই বাড়িতে যাই। শোকাহত লাকী বেগমকে আমি নিজ হাতে মাথায় তেল দিয়ে তার ঘরে রেখে আসি। রিক্সায় করে বাড়ির উদ্দেশ্যে আল-আমিন বাজারের সামনে আসলে অপর একটি রিক্সা করে লাকী বেগমসহ কয়েকজন আমাকে মোবাইল চুরির অপবাদে ধরে পুনরায় তার বাড়িতে নিয়ে যায়। এসময় হামেদ শেখসহ বেশ কয়েকজন আমাকে মিথ্যা চুরির অপবাদ দিয়ে মারধর করে ফেলে রাখে। খবর পেয়ে আমার স্বজনরা পুলিশের সহযোগিতায় আমাকে উদ্ধার করে চিকিৎসা প্রদান করে।

পারুল বেগম দাবী করেন, এ সময় হেনস্থাকারীরা তার নিজের কাছে থাকা একটি মোবাইল ফোন, নগদ অর্থসহ মূল্যবান জিনিসপত্র ছিনিয়ে নেয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মো. দেলোয়ার হোসেনের কাছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি লোক মুখে শুনেছি মোবাইল চুরির অপবাদের এক নারীকে মারধর করা হয়েছে। জানতে পারি শ্রীনগর থানার এসআই ইলিয়াছ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই নারীকে উদ্ধার করেন।

এ বিষয়ে জানতে লাকী বেগমের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।

আব্দুল হামেদ শেখের কাছে জানতে চাইলে তিনি মারধর করার বিষয়ে অস্বীকার করে বলেন, আমি শুধু পারুল বেগমের কাছে জানতে চেয়েছিলাম মোবাইল চুরি করা হয়েছে কি না। ফেইসবুকে মোবাইল চুরির বিষয়টি পোষ্ট করি মাত্র।

এ ঘটনার শতভাগ সত্যতা না জেনে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ওই নারীর বিরুদ্ধে মিথ্যা চুরির অপবাদ প্রচার করাটা কতটুকু যুক্তিসঙ্গত এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, তার কিছুক্ষন পরেই ফেইসবুকের পোষ্টটি আমি রিমুভ করেছি।

একটি সূত্র জানায়, আব্দুল হামেদ শেখ “জাগ্রত বিবেক” নামে একটি ফেইসবুক একাউন্ট থেকে মাঝে মধ্যেই মানুষের নামে অপপ্রচার করে বেড়ায়। তার বিরুদ্ধে এনিয়ে অনেকেই অভিযোগ করেন।

সূত্রটি জানায়, মোবাইলটি লাকীদের ঘরের পাশেই পাওয়া গেছে। তবে মোবাইলটি পাওয়ার বিষয়ে তারা এখন মুখ খুলছেন না।

এ ব্যাপারে অভিযোগটির তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শ্রীনগর থানার এসআই মো. ইলিয়াছ জানান, অভিযোগ হাতে পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নিউজজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.