আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি সংরক্ষন করতে হবে—-কাজী নাহিদ রসুল

আরিফ হোসেনঃ মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক কাজী নাহিদ রসুল বলেছেন, পরবর্তী প্রজন্মের জন্য মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি সংরক্ষন করতে হবে। বীরমুক্তিযোদ্ধাগণের স¥ৃতি সংরক্ষন করা তাদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধার নিদর্শন।

সোমবার বেলা সাড়ে ১১ টায় শ্রীনগরের পাটাভোগ ইউনিয়ন পরিষদে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ গ্যালারি ‘অনির্বাণ’ উদ্বোধনে সময় তিনি এসব কথা বলেন। এসময় তিনি আরো বলেন, ইউনিয়ন পরিষদে প্রতিদিন বিভিন্ন শ্রেনী পেশার মানুষ সেবাগ্রহণের জন্য আসেন এবং এই গ্যালারির মাধ্যমে তারা ইউনিয়নের বীর মুক্তিযোদ্ধগণের সম্পর্কে জানতে পারবেন। তিনি স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস চর্চা ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি সংরক্ষণের এ উদ্যোগ গ্রহণের জন্য উপজেলা প্রশাসনকে সাধুবাদ জানান।

শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব প্রণব কুমার ঘোষের উদ্যোগে ও পরিকল্পনায় পাটাভোগ ইউনিয়ন পরিষদের একটি কক্ষে বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ গ্যালারি ‘অনির্বাণ’ নির্মিত হয়েছে।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, মুন্সীগঞ্জ জেলার মধ্যে ইউনিয়ন পর্যায়ে এ ধরণের উদ্যোগ প্রথম। গ্যালারীতে পাটভোগ ইউনিয়নের বীরমুক্তিযোদ্ধাগণের নাম ও পরিচয় পাথরে খোদাই করে প্রদর্শন করা হয়েছে। এছাড়াও গ্যালারিতে বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক ছবি ও বিভিন্ন গ্রন্থ এবং প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শনীর ব্যবস্থা রয়েছে। পরবর্তী প্রজন্মের নিকট স্বাধীনতার সঠিক ইতিহাস তুলে ধরা এবং বীরমুক্তিযোদ্ধাগণের বীরত্বগাঁথা সংরক্ষণের উদ্দেশ্য নিয়ে এটি নির্মাণ করা হয়েছে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন শ্রীনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ মসিউর রহমান মামুন,উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ তোফাজ্জল হোসেন, পাটাভোগ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হামিদুল্লাহ খান মুন, বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব আনোয়ার হোসেন খান, মোফাজ্জল হোসেন, জয়নাল আবেদীন, আঃ লতিফ, আবু নাছের, মাহফুজ, আহছান হাবিব, ফজলুল হক, শামসুদোহা, আনিছুর ইসলাম তালুকদার, আঃ আজিজ, ইকবাল খবির, আঃ ছামাদ, মোসারফ হোসেন, দলিলুর রহমান, আনিছুর রহমান, আঃ রহিম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উদ্বোধনের পর জেলা প্রশাসকসহ অন্যান্যরা গ্যালারি ঘুরে দেখেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব প্রণব কুমার ঘোষ জানান, জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাগণের জন্য এই উদ্যোগ বাস্তবায়ন করতে পারা গৌরবের। পর্যায়ক্রমে উপজেলার সকল ইউনিয়নে এটি বাস্তবায়ন করা হবে। বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধ গ্যালারি ‘অনির্বাণ’ উদ্বোধনের পর দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.