সিরাজদিখানে হাসপাতালের বারান্দায় পাগলীর সন্তান প্রসব

জেলার সিরাজদিখানে মানসিক ভারসাম্যহীন (পাগল) এক নারী হাসপাতালে সন্তান প্রসব করেছেন। আজ বৃহস্পতিবার বেলা ১২ টার দিকে বিথী (২৭) নামের ওই নারী সিরাজদিখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স হাসপাতালের ইমাজের্ন্সী বারান্দায় একটি ফুটফুটে মেয়ে সন্তান প্রসব করেন। সিরাজদিখান কয়রাখোলা কাঠশাখড়া থেকে উদ্ধার হওয়া বিথী মানসিকভাবে ভারসাম্যহীন। ভারসাম্যহীন বিথিী বেশ কয়েকবছর যাবৎ এই এলাকায় রয়েছে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, বিথী সিরাজদিখান লতব্দী ইউনিয়নের কয়রাখোলা কাঠশাখড়া গ্রামের পাশের একটি বাজারে থাকেন। কয়রাখোলা ও গোডাউন বাজারে সে ভিক্ষা করতেন। তার পরিবারের কোন লোকজন তার কোন খোঁজখবর নিতেন না বলে জানা যায়। সিনিয়র নার্স শাহিনা সুলতানা সূত্রে জানা যায়, দুপুরে বিথীকে ওই এলাকার কয়েকজন নারী পুরুষ প্রসব ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করাতে নিয়ে আসলে। ব্যাথা ওঠে পরলে হাসপাতাল বেডে নেওয়ার আগেই দুপুর ১২ টায় ওই নারীকে হাসপাতালের বারান্দায় প্রসব করা হয়। ওই পাগলিনী মহিলা ফুটফুটে মেয়ে সন্তান জন্ম দেন।

হাসপাতালের ইমার্জেন্সী মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মারুফ রাইয়ান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সাধারণভাবেই সন্তান প্রসব করেছেন (নরমাল ডেলিভারি)। গাইনী কনসালটেন্ট ও শিশু কনসালট্যান্টের পরামর্শে মাধ্যমে প্রসূতি ও নবজাতকের যথাযথ চিকিৎসাসেবা প্রদান করছি। বর্তমানে প্রসূতি মা ও নবজাতক সুস্থ আছে।

সিরাজদিখান উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. শরীফুল আলম তানভীর বলেন, ওই মানসিক ভারসাম্যহীন মহিলা একটি ফুটফুটে মেয়ে সন্তান জন্ম দিয়েছে। তার চিকিৎসা পাওয়ার অধিকার আছে। তার প্রকৃত ঠিকানা অনুসন্ধানের প্রক্রিয়া চলছে। না পাওয়া গেলে তার সুস্থতাপরবর্তী সমাজসেবা অধিদপ্তরের আশ্রয়নের সহায়তা চাওয়া হবে।

নিউজজি

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.