পাঁচ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাসলাইন বিচ্ছিন্ন

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়া উপজেলার ভাটেরচর এলাকায় ৫ কিলোমিটার অবৈধ গ্যাস লাইন বিচ্ছিন্ন করেছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। ৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এই লাইনটির মাধ্যমে অন্তত সাড়ে ৩ হাজার অবৈধ গ্যাস সংযোগ চলত বলে জানিয়েছে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

সোমবার (২৯ আগস্ট) সকালে গজারিয়া উপজেলার মধ্য ভাটেরচর এলাকা থেকে অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন অভিযান শুরু করে তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৪টা পর্যন্ত একটানা অভিযান চলে বলে তিতাস কর্তৃপক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- তিতাস গ্যাসের সোনারগাঁ আঞ্চলিক বিপণন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সরুজ আলম, সোনারগাঁও আঞ্চলিক বিপণন অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী মেজবাউর রহমান, মেঘনা আঞ্চলিক বিপণন অফিসের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী প্রকৌশলী মনিরুজ্জামান।

তিতাস গ্যাসের সোনারগাঁ আঞ্চলিক বিপণন বিভাগের উপ-মহাব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সরুজ আলম বলেন, গজারিয়া উপজেলার জামালদী এলাকার সামুদা কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিতে উচ্চচাপ বিশিষ্ট একটি বিশেষ সংযোগ দিয়েছিল তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ। সম্প্রতি কোম্পানিটির পক্ষ থেকে জানানো হয় তারা লাইনে আগের মতো প্রেশার পাচ্ছেন না। তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তসাপেক্ষে অবৈধ এই লাইনটির সন্ধান পান তারা। মধ্য ভাটেরচর এলাকা থেকে শুরু হয়ে বিশ্বদ্রোন ভাটেরচর হয়ে বৈদ্দারগাঁও পর্যন্ত বিস্তৃত ছিল লাইনটি; যার দৈর্ঘ্য প্রায় ৫ কিলোমিটার। এই লাইনটির মাধ্যমে অন্তত সাড়ে ৩ হাজার সংযোগ চালু ছিল বলে ধারণা তাদের। গজারিয়া উপজেলায় আরও যেসব অবৈধ গ্যাস লাইন চালু রয়েছে সেগুলো বিচ্ছিন্নকল্পে পর্যায়ক্রমিকভাবে তাদের অভিযান চলবে বলে জানান তিনি।

যুগান্তর

Leave a Reply

Your email address will not be published.

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.