জামিন চাইতে গিয়ে বিএনপির ৯ নেতা কারাগারে

জেলায় মুক্তারপুরের পুরোনো ফেরিঘাট এলাকায় পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়ানোর মামলায় জেলা বিএনপির সদস্য সচিব কামরুজ্জামান রতনসহ দলটির ৯ নেতাকর্মীর জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

বুধবার (৯ নভেম্বর) দুপুরে মুন্সীগঞ্জ সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আমজাদ হোসেনের আদালতে জামিন আবেদন করলে নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আগে ওই মামলায় বিএনপির নেতাকর্মীরা উচ্চ আদালতে আবেদন করলে ছয় সপ্তাহের জামিন দেন। আজ মেয়াদ শেষে সংশ্লিষ্ট আদালতে হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করতে বলেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে মামলার এজহারভুক্ত জেলা বিএনপির সদস্য সচিব কামরুজ্জামান রতনসহ ১১৫ নেতাকর্মী সংশ্লিষ্ট আদালতে জামিনের আবেদন করলে আদালত ৯ জনের জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠান।

মুন্সীগঞ্জ কোর্ট পুলিশের ওসি জামাল উদ্দিন জানান, বুধবার বিএনপির ১১৫ নেতকর্মী জেলা ও দায়রা জজ আদালতে জামিন চাইলে বিচারক জেলা বিএনপির সদস্য সচিবসহ ৯ আসামিকে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত, গত ২১ সেপ্টেম্বর মুন্সীগঞ্জের মুক্তারপুরের পুরোনো ফেরিঘাট এলাকায় বিএনপির বিক্ষোভ সমাবেশে পুলিশ-বিএনপির নেতাকর্মীদের সংঘর্ষে আহত হন অন্তত ৫০ জন। এতে গুরুতর আহত যুবদল কর্মী শাওন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

নিউজজি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.